অতিরিক্ত পানি পিপাসা রোজার মাসের প্রধান সমস্যা!

0
126
পানি, পিপাসা, রোজা

“খাওয়া দাওয়া নয়, রোজার মাসের বড় সমস্যা হচ্ছে পানি পিপাসা !”- রমজান মাসে এই কথা বলেন না এমন ব্যক্তি খুব কম আছেন। তার উপরে, এ বছর রোজা রাখতে হবে তিব্র গরমে; প্রায় ১৪ ঘণ্টা ধরে। এই দীর্ঘ সময়ে পানির তেষ্টা পাওয়া খুব-ই স্বাভাবিক। তবে আপনি জেনে খুশি হবেন, একটু নিয়ম মেনে চললেই রোজার দিনে পানি পিপাসা অনেক কমিয়ে আনা সম্ভব। কিভাবে? চলুন জেনে নেই!

রমজান মাসের শারীরিক জটিলতা ও তার সমাধান জেনে নিন

 

  • দেহে পানিশূন্যতা প্রতিরোধে সেহ্‌রী ও ইফতারের সময় প্রচুর পানি পান করুন।
  • উচ্চমাত্রার চর্বি ও চিনিযুক্ত খাবার এবং ভাজা-পোড়া খাওয়া থেকে বিরত থাকুন।
  • সেহ্‌রীতে অতিরিক্ত লবণযুক্ত ও টক জাতীয় খাবার, তেল ও মশলাযুক্ত খাবার খাওয়া উচিৎ নয়। এসব খাবার খেলে দিনভর পানির পিপাসা বৃদ্ধি পায়।
  • সেহ্‌রীতে চা পান করা থেকে বিরত থাকুন। কেননা এর ফলে অত্যাধিক মুত্রত্যাগের মাধ্যমে দেহ থেকে পানি বেরিয়ে যায়।
  • রোজায় পানি পিপাসা থেকে মুক্তি পেতে সেহ্‌রীর সময়ের শেষের দিকে খাদ্য গ্রহন করুন।
  • রোদে ঘোরাঘুরি করা থেকে বিরত থাকুন।
  • প্রচুর টমেটো, তরমুজ ও শসা খান। এসব ফল পানির পিপাসা কমিয়ে আনে।
  • সেহ্‌রীতে লাচ্ছি বা টক দই খান।
  • অতিরিক্ত গরমে একাধিক বার গোসল করুন।

উপরে উল্লিখিত টিপস্‌গুলো নিয়মিত অনুসরণ করলে রোজায় পানি পিপাসা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব। রোজার মাসের খাদ্যাভ্যাস ও জীবনযাত্রা নিয়ে আরও জানতে আমাদের ব্লগে চোখ রাখুন।

-RX71

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ হেলথ নিউজ ,টিপস ,তথ্য এবং মজার মজার রেসিপি নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি হেলথ নিউজ এ ।

আরও পড়ুনঃ   ফরমালিন এর ক্ষতিকর প্রভাব ও এর থেকে বাঁচার উপায়

LEAVE A REPLY