অবক্ষয়-অস্থিরতা অবসানে ‘ইয়োগা’র বার্তা ছড়াতে হবে

0
74

চট্টগ্রাম: সামাজিক অবক্ষয় ও অস্থিরতার অবসানে ‘ইয়োগা’ বা যোগাসনের বার্তা ছড়িয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিভাগীয় কমিশনার মো. রুহুল আমীন।

শুক্রবার (২৪ জুন) সকালে নগরীর হোটেল পেনিনসুলায় চট্টগ্রামের ভারতীয় হাইকমিশন আয়োজিত আন্তর্জাতিক যোগ দিবসের কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।

বিভাগীয় কমিশনার বলেন, বিশ্বে যে অস্থিরতা, অশান্তি বিরাজ করছে তা থেকে মুক্ত হতে হলে প্রাচ্য দেশের বিশেষ ও অভিনব কৌশল ইয়োগার সাহায্য নিতে হবে। ইতিমধ্যে বিভিন্ন দেশে ইয়োগার বার্তা ছড়িয়ে পড়েছে। ভারত উপমহাদেশের মুনি-ঋষি-জ্ঞানীরা ইয়োগার মাধ্যমে অনেক সমস্যার সমাধান করতে পেরেছেন। ব্যক্তিগত সুস্থতা থেকে সামাজিক সুস্থতা সৃষ্টি হয়। কারণ একজন অসুস্থ ব্যক্তি পরিবারের শুধু নয় সমাজেরও সমস্যার সৃষ্টি করে।

কয়েক বছর আগে চার ঘণ্টার ইয়োগা সেশনে অংশ নিয়েছেন জানিয়ে তিনি বলেন, ধ্যানের সঙ্গে মুসলিমদের গভীর সম্পর্ক রয়েছে। মহানবী হজরত মুহাম্মদ (সা.) হেরা পর্বতের গুহায় ধ্যান করেছেন। আমাদের সুস্থ সুন্দর জীবনের জন্যে যোগাসনের প্রয়োগ করতে হবে। চর্চা করতে হবে। মানুষের ধৈর্য, বিপদ মোকাবেলার চ্যালেঞ্জ গ্রহণের জন্যে, নিরাময়ের জন্যে ইয়োগার গুরুত্ব অপরিসীম।

ইউনিসেফের আঞ্চলিক পরিচালক মাধুরী ব্যানার্জী বাংলাদেশের সব শিশুর পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা জানিয়ে বলেন, বিশ্ব যেভাবে উন্নত হচ্ছে তাতে অনেক চ্যালেঞ্জ এনে দিচ্ছে জীবনে। সমাজকে উন্নত করতে চাইলে প্রত্যেককে ভালো থাকতে হবে। এর জন্যে পজেটিভ এনার্জি দরকার। এক্ষেত্রে ইয়োগা সহায়ক ভূমিকা রাখছে। আজ আপনারা যে জ্ঞান অর্জন করবেন তা সমাজে ছড়িয়ে দিতে হবে। কারণ শুধু নিজে ভালো থাকলে হবে না, সমাজকে, সবাইকে ভালো রাখতে হবে।

স্বাগত বক্তব্যে চট্টগ্রামে নিযুক্ত ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনার সোমনাথ হালদার বলেন, ২১ জুন আন্তর্জাতিক যোগ (ইয়োগা) দিবস। এটি আমাদের দ্বিতীয় আয়োজন। এবার আমরা শুক্রবার বেছে নিয়েছি যাতে ছুটির দিনে আগ্রহীরা অংশ নিতে পারেন।

তিনি বলেন, যোগা’র (ইয়োগা) মাধ্যমে শরীর এবং মনের সমন্বয় সাধন করতে পারি। মানসিক অবসাদ থেকে মুক্তির জন্যে এটি দরকার। পাঁচ হাজার বছরের পুরোনো পদ্ধতি এটি। ভারতবর্ষের মুনি-ঋষিরা এটি আবিষ্কার করেছেন। এটি কোনো ধর্মের বিষয় নয়। এটি মানবজাতির সম্পদ, হেরিটেজ।

আরও পড়ুনঃ   দাঁত ব্রাশ ছাড়াও টুথপেস্টের ১০ ব্যবহার

অনুষ্ঠানে ইয়োগা দিবস উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি ভিডিও বার্তা প্রদর্শিত হয়।

সব শেষে বাংলাদেশ ইয়োগা অ্যাসোসিয়েশনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মোহাম্মদ হারুণ ইয়োগা কর্মশালা প্রদর্শন করেন।

তিনি প্রার্থনা বা প্রস্তুতি পর্ব, চালন ক্রীড়া, তারাসন, সুখাসন, যোগাসন, প্রাণায়ন, মুদ্রা ইত্যাদি বিষয়ে হাতেকলমে প্রশিক্ষণ দেন। কর্মশালায় বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার পৌনে দুই শতাধিক মানুষ অংশ নেন।

LEAVE A REPLY