কিডনি বিকল করে ফেলে কামরাঙ্গা!

0
38
কামরাঙ্গা

আমাদের দেশে টক জাতীয় কিছু ফলের মধ্যে কামরাঙ্গা অন্যতম। এই ফলে আছে পটাশিয়াম, ভিটামিন সি, অ্যান্টিঅক্সিডেন্টস, সুগার (কম পরিমাণে), সোডিয়াম, এসিড ইত্যাদি।
এর বৈজ্ঞানিক নাম Carambola, এবং এই ফলটি বিশেষ করে ফিলিপাইন, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, ভারত, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা অঞ্চলের একধরণের স্থানীয় প্রজাতির উদ্ভিদের ফল ও এই ফল দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, দক্ষিণ-প্রশান্ত এবং পূর্ব-এশিয়া অংশে খুব জনপ্রিয়।
কিন্তু কামরাঙ্গাতে আছে এমন একটি উপাদান যা মানবদেহের মস্তিষ্কের জন্য বিষ। সাধারণ মানুষেরা কামরাঙ্গা খেলে, কিডনি তা শরীর থেকে বের করে দেয়। কিন্তু কিডনি রোগীর দুর্বল কিডনি শরীর থেকে এই বিষ বের করে দিতে সক্ষম নয়। এর ফলে তা রক্ত থেকে আস্তে আস্তে দেহের মস্তিষ্কে প্রবেশ করে এবং বিষক্রিয়াও ঘটাতে পারে।
এই সমস্যার লক্ষণগুলো হল- ক্রমাগত হেঁচকি দেয়া, দেহ দুর্বল হয়ে যাওয়া, মাথা ঘোরানো, বমি বমি ভাব, মাথা কাজ না করা, দেহে মৃগী রোগীর মত কাঁপুনি উঠা, কোমায় চলে যাওয়া ও শেষ পর্যন্ত মৃত্যু। কামরাঙ্গা খাওয়ার পর কিডনী রোগীর মধ্যে এই ধরণের লক্ষন গুলো দেখা দিলে দ্রুত তার hemodialysis এর ব্যবস্থা নিতে হবে।
বহুবছর আগে থেকেই বিজ্ঞানীরা জানতেন যে, কামরাঙ্গাতে এমন একটি উপাদান আছে যা কিডনি রোগীর জন্য খুব ক্ষতিকর। কিন্তু কোন বিজ্ঞানীই এই ক্ষতিকর উপাদানটি বের করতে পারেননি। সম্প্রতি University of Sao Paulo (Brazil) এর একদল বিজ্ঞানী এই ক্ষতিকর উপাদানটি বের করতে সক্ষম হয়েছেন।
বিজ্ঞানীরা কামরাঙ্গার এই ক্ষতিকর উপদানটির না দিয়েছেন caramboxin, ও কামরাঙ্গার বৈজ্ঞানিক নাম Carambola হতেই এই ক্ষতিকর উপাদানটির নামকরণ করা হয়েছে।
আসুন কামরাঙ্গার আর কিছু অপকারিতা সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-
১) বিভিন্ন গবেষণায় জানা যায়, কামরাঙ্গা কিছু কিছু মানুষের জন্য খুব খারাপ পরিণতির কারণ হতে পারে। কারণ এটি খুব সহজে শরীরে বিষক্রিয়া ঘটায়।
২) কামরাঙ্গা মানুষের মস্তিষ্কে ক্ষতিকর প্রভাব ফেলে যা পরবর্তীতে মানসিক সমস্যার সৃষ্টি করে। এই বিষক্রিয়াকে নিউরোটক্সিন নাম দেয়া হয়।
৩) যাদের কিডনির সমস্যা রয়েছে, তাদের কামরাঙ্গা না খাওয়া উত্তম। কারণ এতে করে কিডনি বিকল হয়ে যাবার সম্ভাবনা অনেক।

আরও পড়ুনঃ   লাউয়ের স্বাস্থ্য উপকারিতা

ফাতেমা তুজ জোহুরা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here