গলায় কাঁটা বিঁধলে যা করবেন?

0
17
গলায় কাঁটা

আমরা সবাই মাছ ভাতে বাঙালি। মাছ ছাড়া ভাত কল্পনাই করা যায় না। আর খেতে বসে গলায় মাছের কাঁটা ফোটেনি এমন বাঙালি বোধহয় খুঁজে পাওয়া মুশকিল। অনেকে এখনও আছেন মাছের কাঁটা ঠিকমতো বেছে খেতে পারেন না। মাঝে মাঝে অসাবধানতার কারনে গলায় মাছের কাঁটা ফুটে যায়। আর গলায় মাছের কাঁটা বিঁধলে অসম্ভব অস্বস্তি শুরু হয়।

তাহলে জেনে নিন গলায় মাছের কাঁটা বিঁধলে যা করনেন:-

১. সাদা শুকনো ভাতের ছোটো ছোটো বল বানিয়ে চটপট পানি দিয়ে গিলে ফেলতে হবে। মনে রাখবেন, শুধু শুধু সাদা ভাত খেলে কিন্তু গলায় আটকে থাকা জেদি কাঁটা নামাতে পারবেন না।

২. মাছের কাঁটা নিমেষে নরম করে তুলতে পারে পাতি লেবু। তাই গলায় কাঁটা ফুটলে আগে একটা লেবু কাটুন। নুনে মাখিয়ে রস খেয়ে নিন। কাঁটা নরম হয়ে নেমে যাবে গলা দিয়ে।

৩. কলা পিচ্ছিল। তাই গলায় মাছের কাঁটা বিঁধলে আগেই একটা কলা খেয়ে নিন। কখন গলা থেকে কাঁটা নেমে যাবে টেরই পাবেন না।

৪. তেল পিছল পদার্থ। আর অলিভ অয়েল কাঁচা খেলেও ক্ষতি নেই। বাড়িতে যদি অলিভ অয়েল থাকে তৎক্ষণাৎ খেয়ে নিন ১ চামচ। কাঁটা পিছলে গলা থেকে নেমে যাবে।

৫. গলায় ফুটে থাকা মাছের কাঁটা নামাতে দারুণ কাজ দেয় ভিনিগার। জলের সঙ্গে সামান্য ভিনিগার মিশিয়ে খেলে আটকে থাকা কাঁটা খুব সহজে নেমে যায়। অনেকটা পাতি লেবুর মতো কাজ করে।

৬. এছাড়া শুকনো মুড়ি খেলেও সমাধান পাওয়া যায়।

উপরে উল্লেখিত কোনও উপাদানই যদি হাতের কাছে না থাকে, তা হলে অনেক পরিমাণ পানি খেয়েই গলা থেকে কাঁটা নামাতে হবে আপনাকে। ভালো হয় যদি, হালকা গরম পানিতে সামান্য লবণ মিশিয়ে খান। তাতে কাঁটা নরম হয়ে তাড়াতাড়ি গলা থেকে নেমে যাবে। আপনিও তাড়াতাড়ি কাঁটা ফোটার যন্ত্রণা থেকে নিস্তার পাবেন।

আরও পড়ুনঃ   কোন ঔষধ কখন খাবেন জেনে নিন সেবনের নিয়ম-কানুন?

তবে সব ক্ষেত্রে এই পদ্ধতিগুলো কাজ করবে তা ঠিক নয়। প্রথমে এগুলো দিয়ে চেষ্টা করুন। কাজ না হলে দ্রুত ডাক্তারের কাছে চলে যেতে হবে।

LEAVE A REPLY