ঘুমের কারণে যে মারাত্মক রোগগুলো হতে পারে!

0
227
ঘুম

আপনি জানেন কি, খাবার ছাড়া ২ সপ্তাহ বেঁচে থাকতে পারবেন কিন্তু ঘুম ছাড়া ১০ দিনের বেশি বাঁচতে পারবেন না। আবার অনেকই আছেন যারা বেশি ঘুমাতে পছন্দ করেন।

ঘুম বেশি বা কম যেটাই হোক না কেন আমাদের স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। বেশি ঘুমানো, কম ঘুমানো, অনিদ্রা, ঘুম পাতলা হওয়া এইসকল ঘুম সংক্রান্ত জটিলতার কারণে আমরা আক্রান্ত হই অনেক মারাত্মক রোগে, যা সম্পর্কে আমরা অনেকেই জানি না।

চলুন তবে দেখে নেয়া যাক ঘুম সংক্রান্ত জটিলতার কারণে আমাদের দেহে বাসা বাঁধে কোন রোগগুলো।

প্যারাসমনিয়া
প্যারাসমনিয়া একধরনের ঘুম সম্পর্কিত রোগ যা মানুষকে ঘুমের মধ্যে অস্বাভাবিক কাজ করতে বাধ্য করে। এই রোগের কারনে অনেক ধরনের অপরাধ পর্যন্ত করতে পারে মানুষ। আজ পর্যন্ত এই রোগের কারনে অনেক অপরাধ সংঘটিত হয়েছে। তার মধ্যে ঘুমের মধ্যে গাড়ী চালানো , হত্যা, শিশুনির্যাতন এবং ধর্ষন সব চাইতে গুরুতর। অতিরিক্ত মানসিক চাপ, অনিদ্রার মারাত্মক পর্যায়ে চলে গেলে এই রোগটি হয়।

এক্সপ্লোডিং হেড সিনড্রোম
গভীর ঘুমের মধ্যে হঠাৎ অস্বাভাবিক জোরে কোনো শব্দে জেগে উঠেছেন কখনো? অনেকেরই এই ধরণের সমস্যা রয়েছে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষ ভাবেন আসলেই কোথাও শব্দ হয়েছে। কিন্তু এটি একটি ঘুম সংক্রান্ত রোগ। এর নাম ‘এক্সপ্লোডিং হেড সিনড্রোম’। যে শব্দটির কারণে ঘুম ভেঙ্গে যায় সেটি আর কোথাও নয়, রোগীর মাথার ভেতরেই হয়ে থাকে। খুব অদ্ভুত এই রোগটি বেশি ঘুমানোর কারণে হয়ে থাকে।

স্লিপ প্যারালাইসিস
স্লিপ প্যারালাইসিস। এই রোগটিকে আমরা অনেকেই বলি ‘বোবায় ধরা’। ঘুমের সময় স্বপ্নে অদ্ভুত কিছু থেকে বাঁচার চেষ্টায় হাত পা বা দেহ নাড়ানোর চেষ্টা করে অনেকেই কিন্তু কোনো ভাবেই দেহকে নাড়ানো যায় না। এই সমস্যায় কম বেশি সকলেই পড়ে থাকেন। কিন্তু কেউই পাত্তা দেন না। অনেকেই ভাবেন রাতের বেলা ঘুমের মধ্যে জীনে ধরেছিল। কিন্তু এটি আসলে একটি রোগ। অনিয়মিত ঘুমের সময় এবং অনিদ্রাজনিত কারণে এই রোগটি হয়।

আরও পড়ুনঃ   যে ৭টি কারণে আপনি ঘুম থেকে উঠছেন মাথাব্যথা নিয়ে

দুঃস্বপ্ন দেখা
অনেকেই আছেন যারা ঘুমের মধ্যে দুঃস্বপ্ন দেখেন। এটি যে একধরণের রোগ তা মানতে নারাজ অনেকেই। কিন্তু আসলেই ঘুমের মধ্যে দুঃস্বপ্ন দেখা একটি রোগের মধ্যে পড়ে। মানসিক চাপ, অনিদ্রা, না ঘুমানোর কারণে দুঃস্বপ্ন দেখেন অনেকেই।

-বিডিলাইভ

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ হেলথ নিউজ ,টিপস ,তথ্য এবং মজার মজার রেসিপি নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি হেলথ নিউজ এ ।

LEAVE A REPLY