ত্বকের যত্নে বরফের ৫টি কার্যকরী প্যাক

0
123
ত্বকের যত্নে বরফ

আধুনিক যুগে রূপচর্চায় স্কিন আইসিং বেশ জনপ্রিয় একটি বিউটি ট্রিটমেন্ট। বিউটি এক্সপার্টরা এটি স্পা এবং স্কিন ট্রিটমেন্ট হিসেবে ব্যবহার করে আসছেন অনেকদিন যাবত। কোরিয়ানদের সৌন্দর্য বিশ্বখ্যাত। এই কোরিয়ানরা তাদের রূপ চর্চায় ব্যবহার করেন বরফ। অনেকগুলো কারণে বরফ ত্বকের জন্য উপকারী। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য কিছু কারণ হল,

ত্বক টোনিং করতে এটি বেশ কার্যকর।

বলিরেখা পড়া প্রতিরোধ করে।

ব্রণ এবং ব্রণের দাগ দূর করতে সাহায্য করে।

ত্বকে রক্ত চলাচল সচল রাখে

ত্বকের জন্য উপকারী বেশ কিছু আইস কিউব রেসিপ আসুন জেনে নেওয়া যাক।

*রূপচর্চায় ব্যবহার করুন বরফ

১। শশা মধুর আইস কিউব

এক টেবিল চামচ শশার রস এবং তিন টেবিল চামচ মধু এক কাপ পানিতে মিশিয়ে নিন। এবার এটি বরফের ট্রেতে ঢালুন। এটি ফ্রিজে রাখুন। বরফ হয়ে গেলে এটি মুখ এবং ঘাড়ে ১০ মিনিট ম্যাসাজ করে লাগান। তারপর পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। ত্বক পরিষ্কার করতে এটি বেশ কার্যকর।

২। অ্যালোভেরা জেলের কিউব

আধা কাপ অ্যালোভেরা জেল আইস ট্রেতে ঢেলে দিন। এটি ফ্রিজে ২ ঘণ্টা রাখুন। এরপর এটি মুখ এবং ঘাড়ে ১৫ মিনিট ম্যাসাজ করে লাগান। অ্যালোভেরা জেলের অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল এবং অ্যান্টি ইনফ্লামেটরী উপাদান রোদে পোড়া দাগ, ত্বকের জ্বালা পোড়া দূর করতে সাহায্য করবে।

৩। কাঁচা দুধ এবং লেবুর রস

সম পরিমাণ কাঁচা দুধ এবং লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে নিন। এবার এটি আইস ট্রেতে ঢেলে দুই ঘণ্টা ফ্রিজে রাখুন। বরফ হয়ে গেল ত্বকে ব্যবহার করুন। দুধে থাকা ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বকের কোলাজেন বৃদ্ধি করে বলিরেখা দূর করে। আর লেবুর রস দ্রুত ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

৪। গ্রিন টি

এক কাপ গ্রিন টি তৈরি করে নিন। এবার এটি আইস ট্রিতে ঢেলে নিন। বরফ হয়ে গেলে চোখের নিচে ম্যাসাজ করে লাগান। চোখের নিচের কালো দাগ দূরে এটি বেশ কার্যকর। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করার সাথে সাথে চোখের ফোলাভাব দূর করে দেয়।

আরও পড়ুনঃ   একবার মাখলেই বয়স কমবে ১০ বছর !

৫। নিম পাতা এবং হলুদের গুঁড়ো

দুই টেবিল চামচ নিম পাতা গুঁড়ো আধা কাপ পানিতে মিশিয়ে নিন। এর সাথে এক চিমটি হলুদের গুঁড়ো দিয়ে দিন। এটি বরফের ট্রেতে ঢালুন। তারপর ফ্রিজে ২-৩ ঘন্টা রেখে দিন। নিম পাতা এবং হলুদের পানি দিয়ে তৈরি বরফের টুকরোটি ব্রণ দূর করতে বেশ কার্যকর।

লেখাটি ভাললাগলে কিংবা উপকারে আসলে শেয়ার করে অপরকে জানান।

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ হেলথ নিউজ ,টিপস ,তথ্য এবং মজার মজার রেসিপি নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি হেলথ নিউজ এ ।

LEAVE A REPLY