নারীদের ঋতু চলাকালে ঋতুতে বিলম্ব হওয়ার কারণ, লক্ষণ ও চিকিৎসা

0
175
নারীদের ঋতু

নারীদের ডিম্বকোষ হতে দু’প্রকার রস নিঃসরণ হয়। প্রথমটির সাহায্যে ডিম্বকোষ থেকে ডিম্ব বের হয়ে Fallopian tube এর সাহায্যে জরায়ুতে আসে ইহাকে বহিঃ নিঃসরণ বলা হয়ে থাকে। আর অপরটি হলো অন্তনিঃসরণ। এর সাহায্যে সন্তান উত্পাদন সংক্রান্ত সমস্ত যন্ত্রবৃদ্ধি ও পরিপুষ্টি লাভ করে থাকে এবং এর অভাব ঘটলে প্রজনন যন্ত্রসমূহের পুষ্টির অভাব, রজ প্রকাশে বিলম্ব বা সম্পূর্ণ রজরোধ ও প্রজনন ক্ষমতা লোপ ইত্যাদি উপসর্গ উপস্থিত হয়। আবার অনেক সময় স্নায়ুবিক দুর্বলতা, দীর্ঘকাল কোন পীড়ায় ভোগে শারীরিক দুর্বলতা, রক্তহীনতা বশত এবং যোনি মুখ আবরক ঝিল্লি-ছিন্ন না হওয়াতে রজ প্রকাশে বিলম্ব ঘটতে পারে।

অনেক সময় ঋতু চলছে কিন্তু তা ঠিকমত ২৮ দিন অন্তর অন্তর হয় না। কখনো কখনো ৩০/৩৫/৪০ দিন পর, কখনো বা আরো দেরিতে হয়।
কতগুলো কারণের জন্য এ রকম বিলম্ব ঘটতে পারে:-

  • নারীদেহে হরমোনের অভাব হলে।
  • ডিম্বাশয়ের অপরিনতি হলে।
  • আবার রক্তহীনতার জন্যও হতে পারে।
  • উপযুক্ত খাবার এবং পুষ্টির অভাবে হতে পারে।

কোন কোন ক্ষেত্রে দেখা যায় ডিম্বাশয়, ডিম্বনালী প্রভৃতি গঠনের জন্য ঠিকমতো বা সময়মতো ডিম্বের অথবা জরায়ুর অসুস্থতার জন্য ঠিকমতো ঋতু প্রকাশ পায় না। তাছাড়াও একটি বিষয় প্রকট ভাবে দেখা যে – জরায়ুর নানা প্রকার রোগের জন্যও ঋতু প্রকাশে বিলম্ব ঘটে থাকে। সেক্ষেত্রে প্রপার হারবাল ট্রিটমেন্ট এর মাধ্যমে জরায়ুর সংক্রান্ত রোগসমূহ নির্মূল করলেই ঋতুস্রাব বা মাসিক স্বাভাবিক হয়ে আসে।

নারীদের ঋতু (Menstruation) চলাকালে ঋতুতে বিলম্ব হওয়ার লক্ষণ :- এই সমস্যাটির বেশ কিছু লক্ষণ প্রকাশ লাভ করে থাকে। নিচে সে গুলি সম্পর্কে আলোকপাত করা হলো :

  • দেহে রক্তহীনতার ভাব অতি প্রকট ভাবে দেখা দেয় এবং রোগিনী রক্তহীনতায় ভোগে।
  • দেহের গঠন কৃশকায় হয়, দেহ ঠিকমতো বর্ধিত এবং পুষ্টি লাভ করে না।
  • অনেক সময় হরমোনের গোলযোগে দেহ খুব স্থুলকায় হয় কিন্তু ঋতুর গোলযোগ থেকে যায়।
  • মাথা ধরা, মাথা ব্যথা, মাথা ভার প্রভৃতি লক্ষণ দেখা দিতে পারে।
  • তল পেতে ভা বোধ, শরীর অসুস্থ, গা মেজ মেজ কার, দুর্বলতা বোধ করা, সামান্য পরিশ্রমেই ক্লান্তিবোধ ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দেয়।
  • কখনো কখনো ঋতু খুব সামান্য হয়ে হঠাৎ বন্ধ হয়ে যায়। কখনো দেরিতে হলেও ঋতু খুব বেশি পরিমানে হয়।
  • কখনো কখনো গা এবং হাত পায়ে ব্যথা হয়, পেট, বুক, স্তনেও বেদনা বোধ হয়। উরুতে ভারবোধ হয়, থেকে থেকে বুকে যন্ত্রণা দেখা দেয়।
  • শ্বাস-প্রোশ্বাসে কষ্ট হয়, বুক ধড়ফড় করে, থেকে থেকে বুকে যন্ত্রণা দেখা দেয়। মন অবসন্ন হয়, কোন কাজে মনোযোগ থাকে না।
আরও পড়ুনঃ   ডেঙ্গু প্রসঙ্গ

নারীদের ঋতু (Menstruation) চলাকালে ঋতুতে বিলম্ব হওয়ার কারণ এবং লক্ষণগুলি সম্পর্কে জানলেন। কিন্তু দেখা যায় আমাদের দেশের গ্রাম-গঞ্জ থেকে শুরু করে শহরের শিক্ষিত অনেক মহিলারাই বিষয়টি মনের মধ্যে পুষে রাখেন এবং কাউকেই বলতে চান না। অথচ রোগ তা যে প্রকারেরই হোক না কেন এটি রোগ হিসেবেই বিবেচনা করতে হবে এবং কোন প্রকার সংকোচ না করে চিকিৎসকের কাছে যেতে হবে। অনেকেই নানা প্রকার চিকিৎসা নিয়েও আবার আরোগ্য হন না।
জেনে রাখা দরকার মহিলাদের এই সমস্যা গুলির প্রপার ট্রিটমেন্ট না করলে তা পুরোপুরি নির্মূল হয় না। আর নারীদের মাসিক/ঋতু সংক্রান্ত সমস্যাগুলির আরোগ্যদায়ক এবং সর্বাধিক কার্যকর ট্রিটমেন্ট নিশ্চিত করে রেখেছে হারবাল চিকিত্সা বিজ্ঞান। তাই মহিলাদের কেউ মাসিক/ঋতু সংক্রান্ত কোন সমস্যায় আক্রান্ত হলে কোন প্রকার সংকোচ না করে অভিজ্ঞ একজন হারবালপ্যাথের সাথে যোগাযোগ করে যথাযথ চিকিত্সা নিন। এর জন্য খুব দীর্ঘকাল ঔষধ খেতে হবে না। খুব তাড়াতাড়িই জটিল উপসর্গ গুলি মূল থেকে নির্মূল হয়ে পরিপূর্ণ সুস্থতা লাভ করবেন ইনশাল্লাহ।

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ হেলথ নিউজ ,টিপস ,তথ্য এবং মজার মজার রেসিপি নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি হেলথ নিউজ এ ।

LEAVE A REPLY