ব্ল্যাকহেডস সমস্যায় ঘরোয়া চিকিৎসা

0
108
ব্ল্যাকহেডস,ব্ল্যাকহেডস সমস্যা, ঘরোয়া চিকিৎসা

শীত হোক বা গরম, তৈলাক্ত ত্বক মানেই ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা। অনেক সময় মিশ্র ধরনের ত্বকেও টি-জোন তৈলাক্ত হওয়ার কারণে ব্ল্যাকহেডস দেখা যায়। মেক আপ করলেও কিন্তু ফুটে বেরোয় ব্ল্যাকহেডস। কোনও ভাবেই ঢাকা যায় না নাকের দু’পাশের কালো দাগ। জেনে নিন ব্ল্যাকহেডস সমস্যার কিছু ঘরোয়া সমাধান।

১। টমেটো– টমেটোর অ্যান্টিসেপটিক গুণ ব্ল্যাকহেডস দূর করতে সাহায্য করে। একটা ছোট টমেটো নিয়ে খোসা ছাড়িয়ে চটকে নিন। রাতে শুতে যাওয়ার আগে নাকের ব্ল্যাকহেডসের উপর লাগান। সকালে উঠে জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২। লেবু– ত্বকের যে কোনও সমস্যার মতোই ব্ল্যাকহেডসের সমস্যাতেও দারুণ কাজ করে লেবু। কয়েক ফোঁটা লেবুর রস নিয়ে নুন মিশিয়ে নিন। ব্ল্যাকহেডসের ওপর লাগিয়ে নিন। ২০ মিনিট রেখে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

৩। টুথপেস্ট– ব্ল্যাকহেডসের ওপর পাতলা করে টুথপেস্ট লাগিয়ে রাখুন। ২৫ মিনিট রেখে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন। টানা দু’সপ্তাহ এটা করলে ব্ল্যাকহেডস পুরোপুরি কমে যাবে।

৪। মধু– টমেটোর মতোই মধুরও অ্যান্টিসেপটিক গুণ রয়েছে। ব্ল্যাকহেডসের ওপর মধু লাগিয়ে রাখুন। ১৫ মিনিট পর হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

৫। বেকিং সোডা– জলে বেকিং সোডা গুলে পেস্ট তৈরি করে নিন। ব্ল্যাকহেডসের ওপর এই পেস্ট লাগিয়ে কিছুক্ষণ রাখুন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন। এই পেস্ট অতিরিক্ত তেল শুষে নেবে। তৈলাক্ত ত্বকেই ব্ল্যাকহেডসের সমস্যা বেশি হয়।

৬। দই– দুই টেবিল চামচ ওটমিল, তিন টেবিল চামচ দই, এক টেবিল চামচ লেবুর রস ও অলিভ অয়েল মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই প্যাক গোটা মুখে লাগিয়ে নিন। ১০ থেকে ১৫ মিনিট রাখুন। ঠান্ডা জলে মুখ ধুয়ে নিন। ব্ল্যাকহেডসের সঙ্গে সঙ্গে তৈলাক্ত ত্বকের সমস্যাও দূর হবে।

৭। কাঁচা ডিম– একটা বা ডিমের সাদা অংশের সঙ্গে এক টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে নিন। ব্ল্যাকহেডসের ওপর লাগিয়ে রাখুন। ৩০ মিনিট পর হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

আরও পড়ুনঃ   পেটের সমস্যাসহ নানা রোগের মহৌষধ থানকুনি পাতা

৮। দারচিনি– সম পরিমাণ দারচিনি গুঁড়ো ও লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই পেস্ট ব্ল্যাকহেডসে লাগিয়ে সারা রাত রাখুন। সকালে হালকা গরম জলে ধুয়ে ফেলুন।

-বাংলাদেশ নিউজ

LEAVE A REPLY