মাত্র ৫ মিনিট দৌড়ান, ৩ বছর বেশী বাচবেন!

0
122
দৌড়,দৌড়া

আরো পড়ুন দৌড়ের আগে ও পরে কী খাবেন?

সুস্থ সবল শরীরের জন্যে ব্যায়াম দরকার তা তো আমরা প্রত্যেকেই জানি। কিন্তু ব্যায়ামটা আর করা হয়ে ওঠে না। কারণ ব্যায়াম বলতেই আমারা বুঝি প্রতিদিন নিয়ম করে ১ ঘন্টা জিমে কাটানো, কমপক্ষে ৪০ মিনিট ব্যায়াম করা, মেডিটেশন, ইয়োগ কত কি! আর এর সবগুলোই বেশ সময় সাপেক্ষ!

তাই “সময় নেই” বলে ব্যস্ততার অজুহাতে আমরা অনেকেই এড়িয়ে যাই ব্যায়াম। ফলে আমাদের দেহের সবলতা হারিয়ে যেতে থাকে একটু একটু করে আর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা করে যাওয়ায় সহজেই আক্রান্ত হতে পারি বিভিন্ন রোগে।

অথচ কেমন হয়, যদি মাত্র ৫ মিনিট, হ্যাঁ, মাত্র ৫ মিনিট দৌড়ালেই হয়ে যায় শরীরের নানা রকম উপকার? মিথ্যে নয়, একেবারেই সত্যি।

জেনে নিন প্রতিদিন মাত্র ৫ মিনিট দৌড়াবার ফলে যে ৬ টি স্বাস্থ্য উপকারিতা আপনি পেয়ে থাকেন-

১। ৩ বছর বেশী আয়ুঃ

এটি আপনার বিভিন্ন রোগের ঝুঁকিই কমায় না বরং আপনার জীবনের সাথে যুক্ত করে বাড়তি ৩ টি বছর একদম ফ্রী! ৫৫০০০ জনের উপর একটি গবেষণায় দেখা গেছে যারা প্রতিদিন কমপক্ষে ৫ মিনিট দৌড়ান, তারা অন্যদের চেয়ে কমপক্ষে তিন বছর বেশী বাঁচেন। অর্থাৎ প্রতিদিনের মাত্র ৫ মিনিটের দৌড় আপনার আয়ুতে যুক্ত করছে আরো ১.৫ মিলিয়ন অতিরিক্ত মিনিট!

২। কমিয়ে আনে সব ধরনের মৃত্যুহারের ঝুঁকি!

প্রতিদিন যারা মাত্র ৫ মিনীট দৌড়ান এবং নিয়মিত সেটি চালিয়ে যান। অন্যেদের তুলনায় তাদের বিভিন্ন রগে মৃত্যুর ঝুঁকি হ্রাস পায়।

৩। রক্তচাপের উন্নতি, হার্ট এটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি হ্রাসঃ

দৈনিক ৫ মিনিটের দৌড় আপনার কার্ডিওভাসকুলার ফিটনেস বাড়ায়। এর ফলে আপনার রক্তচাপ থাকে স্বাভাবিক। ইউরোপিয়ান জার্নাল অব প্রিভেনটিভ কার্ডিওলজির এক গবেষণায় দেখা গেছে, এই ছোট্ট পরিমাণের ব্যায়াম নিয়মিত করার ফলে তা আপনার হার্টকে রাখে চমৎকার রকম সচল। ফলে কমে আসে হার্ট এটাক, ও স্ট্রোকের ঝুঁকিও।

আরও পড়ুনঃ   ফিটনেস নতুনদের জন্য...

৪। কমিয়ে আনে ডায়াবেটিসের আশংকাঃ

আপনার রক্তে যখন শর্করার ভারসাম্যহীনতা ঘটে তখন তা আপনার ডায়াবেটিসের ঝুঁকি বাড়ায়। প্রতিবছর শুধুমাত্র আমেরিকাতেই ৭১০০০ মানুষ ডায়াবেটিসে মারা যায়।

কোসার মেডিকেল ইন্সটিটিউটের এক গবেষণায় দেখা যায়, প্রতিদিন ৫ মিনিট দৌড়ানোর ফলে যাদের ডায়াবেটিস আছে তাদের রক্তে শর্করার ভারসাম্য আসতে সাহায্য করে এবং নিয়মিত ইন্সুলিন ইনজেকশন নেয়ার চেয়ে হাজারগুণে বেশি ভালো কাজ করে এটি।

৫। ফুসফুসের কার্যকারিতাঃ

আমেরিকান কলেজ অব কার্ডিওলজির এক গবেষণায় দেখা যায়, ১৫ বছর ধরে যারা নিয়মিত ৫ মিনিট দৌড়ান, তাদের ফুসফুসের কার্যকারিতা অন্যদের চেয়ে অনেক বেশি। তারা ফুসফুসের বিভিন্ন সংক্রমণ থেকে অন্যদের চেয়ে বেশী বেঁচে যান।

৬। বিষন্নতা থেকে মুক্তিঃ

ভাবুন তো, রোজ সকালে মাত্র ৫ মিনিট দৌড়াবার ফলে যদি আপনার মন মেজাজ সারাদিন থাকে দারুণ চনমনে, সেটা কি দারুণ না! মোটেই বানিয়ে বলছি না। গবেষণা বলে, প্রতিদিন এই সামান্য সময়টুকুর দৌড়ানোর ফলে আপনার দেহের উপরেই কেবল নয় বরং মনের উপরেও দারুণ প্রভাব ফেলে। এতে আপনই বিষন্নতা থেকে থাকবেন হাজার মাইল দূরে।

৭। ভালো ঘুমের সেরা উপায়ঃ

এক রাত অবধি ঘুম না হওয়া আর সারাদিন ঘুম ঘুম ভাবের কারণে ঠিক ঠাক কাজ করতে না পারার মতন বিরক্তিকর কিছুই নেই। ২০১২ সালে জার্নাল অব এডোলসেন্ট হেলথের এক গবেষণায় জানা যায়, প্রতিদিন সকালে মাত্র ৫ মিনিট দৌড় আপনার রাতের ঘুম ভালো করতে কাজ করে ম্যাজিকের মতন।

এই ব্যস্ত জীবনে সারাদিনে ব্যায়ামের জন্যে ১ ঘন্টা সময় বের করা বেশ কঠিন। কিন্তু ৫ মিনিট তো কিছুই না। তাই এলার্মের কাঁটাটা পিছিয়ে নিন ৫ মিনিট! ৫ মিনিট আগে ঘুম থেকে উঠে দৌড়ে আসুন। মন ও শরীর, ভালো থাকবে দুটোই! সুস্থ থাকুন!

বিঃ দ্রঃ গুরুত্বপূর্ণ হেলথ নিউজ ,টিপস ,তথ্য এবং মজার মজার রেসিপি নিয়মিত আপনার ফেসবুক টাইমলাইনে পেতে লাইক দিন আমাদের ফ্যান পেজ বিডি হেলথ নিউজ

LEAVE A REPLY