হঠাৎ হাঁচি, এখন উপায়?

0
35
হাঁচি

আব্দুল কাইয়ুম: আপনি বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর চূড়ান্ত পর্বে অথবা চাকরির জন্য মৌখিক পরীক্ষা দিচ্ছেন। হঠাৎ ভীষণ হাঁচি পেল। এখন কী করবেন! পরীক্ষাটা মাটি হবে? এরকম হঠাৎ হাঁচি এলে কি করবেন? থাকল কিছু পরামর্শ।
১. সবচেয়ে সহজ ও ধন্বন্তরি চিকিত্সা হলো, মুখ মোছার ভঙ্গি করে আপনার হাতের তর্জনী দিয়ে নাকের ডগায় সুড়সুড়ি দিন। খুব হালকাভাবে আঙুল বোলালেই চলবে। ব্যস, হাঁচি হাওয়া। পরীক্ষক বুঝতেই পারবেন না যে আপনি একটা অস্বস্তির মধ্যে পড়েছেন। তবে কাজটা খুব দ্রুত কিন্তু স্বাভাবিক ভঙ্গিতে করতে হবে। এবং হাঁচির অনুভূতির শুরুতেই আঙুল চলে যাবে নাকের কাছে। একটু দেরি হলেই সর্বনাশ। নাকের ডগা খুব অনুভূতিপ্রবণ। সেখানে আঙুলের হালকা স্পর্শ নাকের ভেতরের অস্থিসন্ধির সঙ্গে যুক্ত শুভ্র তন্তুময় সংবেদনশীল উপাস্থিকে হাঁচির প্রতিকূল সংকেত দেয়। ফলে হাঁচি আর আসে না। পরীক্ষা করে দেখতে পারেন।
২. হাঁচির আভাস পেলেই মুখের ভেতর জিহ্বা দিয়ে তালুতে সুড়সুড়ি দিন। হাঁচি থেমে যাবে।
৩. অথবা আঙুল দিয়ে দুই ভুরুর মাঝখানে চাপ দিন। এতেও উপকার পাওয়া যাবে।
৪. অন্য একটি উপায় আছে। আঙুল দিয়ে ঠোঁট চেপে ওপরে নাকের দিকে চাপ দিন। এটা হাঁচির অনুভূতি থামাতে সাহায্য করবে। কানের লতি চেপে ধরলেও কাজ হবে।
৫. হাঁচি যদি এসেই পড়ে, তাহলে নাকের সামনে রুমাল ধরে প্রাণভরে কিন্তু যথাসম্ভব কম শব্দে হাঁচি দিন। যদি হাতের কাছে রুমাল বা টিস্যু না থাকে, তাহলে দুই হাতে নাক-মুখ ঢেকে হাঁচি দিন এবং পরে দ্রুততম সময়ে হাত ধুয়ে ব্যাকটেরিয়া পরিষ্কার করে নিন। এতে অন্তত পরীক্ষক বুঝবেন যে আপনি স্বাস্থ্যসচেতন।

ঘন ঘন হাঁচি দেয়া প্রতিরোধের উপায়

বার বার হাঁচি আসলে কি করবেন?

আরও পড়ুনঃ   কি করে বুঝবেন কি সাপ কামড়েছে?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here