ওভেনে বা চুলোতে শুকিয়েই তৈরি করুন কালোজিরা দিয়ে ডালের বড়ি!

0
88
Daler Bodi
আজকাল এই ঢাকা শহরে অনেক বাড়িতেই রোদ ঢোকে না, আবার বাজারের বড়ি হয় নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর। কিন্তু তাই বলে বুঝি ডালের বড়ি খাওয়া হবে না মাছের ঝোলে ডুবিয়ে? আলবাত হবে! চলুন, আজ আপনাদের জানাবো ডালের বড়ি তৈরির খুব সহজ রেসিপি, যেন রোদ না থাকলেও অনায়াসে তৈরি করতে পারেন। এখনোই তো বড়ি তৈরির মৌসুম!
হাতে তৈরি এই বড়িতে কেবল যে সুস্বাদ মিলবে, সেটা কিন্তু নয়। থাকছে স্বাস্থ্যগুণও। কারণ বড়ির সাথে থাকছে স্বাস্থ্যকর কালিজিরা। অর্থাৎ স্বাদ ও স্বাস্থ্য একসাথে! কে না জানে যে কালিজিরা ওজন কমানো হতে শুরু করে হজমের সমস্যা, জয়েন্টের ব্যথাসহ হরেক রোগের মহৌষধ।
চলুন, জেনে নিই রেসিপি।
উপকরণ: 
নতুন মাষকলাই ডাল ৩ কাপ
(ভালো করে ঝেড়ে সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রাখা)
গাছপাকা বাতি চাল কুমড়ো দেড় কেজি
(গ্রেটার দিয়ে মিহি করে ঝুরি করে নেয়া)
কালিজিরা ২/৩ টেবিল চামচ
লবণ সামান্য
প্রণালি: 
-চাল কুমড়োর ঝুরি পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ২/৩ ঘণ্টা। চাইলে সাথে এক চিমটি লবণ যোগ করতে পারেন। এতে কষ, টক বা তিতা থাকলে সেটা দ্রুত চলে যাবে।
-২/৩ ঘণ্টা পর একটা শুকনো কাপড় দিয়ে কুমড়ো ঝুরি ভালো করে চেপে চেপে শুকিয়ে নিন। শুকনো কাপড়ে মেলে বাতাসে মেলে রাখুন যেন পানি ভালো করে শুকিয়ে যায়।
-ভেজানো ডাল পানি ছেঁকে নিন। এরপর ব্লেন্ডারে সেই ডাল দিয়ে সাথে হাফ কাপ পানি যোগ করুন। এক চিমটি লবণ দিন। ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। চাইলে পাটায় বেটেও নিতে পারেন। খুব বেশি মিহি পেস্ট করার প্রয়োজন নেই। এতে বড়ির শেপ সুন্দর হবে না।
-একটু বড় বাটিতে ডাল বাটা ও কুমড়ো ঝুরি নিয়ে নিন। হাত বা কাঁটা চামচ দিয়ে খুব করে ফেটাতে থাকুন। ফেটাতে ফেটাতে দেখবেন ডাল ফুলে উঠেছে, হালকা মনে হচ্ছে, রঙও একটু ফ্যাকাশে লাগবে।
– একটা বাটি বা কাপে পানি ভরে নিন। অল্প একটু ডালের মিশ্রণ বড়ি আকারে ফেলে দেখুন। যদি ডালের মিশ্রণ সুন্দর করে ভেসে ওঠে, তাহলে বুঝবেন ডাল যথেষ্ট ফ্লাপি হয়েছে, বড়ি তৈরির জন্য একদম রেডি! এই পর্যায়ে কালোজিরা মিশিয়ে দিন হালকা হাতে। ডাল রেডি হবার আগে কালিজিরা মেশাবেন না।
– ট্রে-তে ফয়েল পেপার বা বাটার পেপার বিছিয়ে নিন। কিছুই না থাকলে হালকা তেল মেখে নিন। এবার হাত দিয়ে একটু ফাঁক ফাঁক করে বড়ি দিয়ে দিন। শেপটা পানির ফোঁটার মত করতে পারেন বা আপনার যেমন ইচ্ছা। সব গুলি দেয়া হয়ে গেলে রোদে শুকোতে দিন। টানা ৫/৬ দিন রোদে শুকান। উল্টেপাল্টে ভালো করে শুকিয়ে নিন।
– ওভেনে করতে চাইলে ১৬০ ডিগ্রি তাপমাত্রায় প্রি হিট ছাড়া ওভেনে বেক করুন বড়ি জমে যাওয়া পর্যন্ত। খেয়াল রাখবেন যেন লাল রঙ না ধরে। এরপর খুব কম আছে চুলো জ্বালিয়ে চুলোর নিচে কয়েকদিন শুকিয়ে নিন ভালো করে। এছাড়া সরাসরি চুলোর নিচেও দিয়ে দিতে পারেন। এতে প্রথমে কিছুক্ষণ আঁচ বেশি রেখে বড়ি একটু ড্রাই করে নিয়ে তারপর আঁচ কমিয়ে নেবেন।
-এই বড়ি এয়ার টাইট জারে বা ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন।
রুমানা বৈশাখী /আর বি
আরও পড়ুনঃ   খুব সহজে ছানার জিলাপি তৈরি হবে আপনারই হেঁশেলে (দেখুন ভিডিওতে)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

13 + 6 =