ক্যাফেইন মুক্ত চা : শরীর ঠান্ডা রাখতে ক্যাফেইন মুক্ত চা পান করুন

0
41
ক্যাফেইন মুক্ত চা

গরমের সময় খুব বেশি ক্যাফেইনযুক্ত পানীয় যেমন- চা, কফি কম পান করা ভালো না। তাই এমন পানীয় পান করা উচিৎ যার দ্বারা আপনি উজ্জীবিতও থাকবেন আবার আপনার শরীরও থাকবে ঠান্ডা। হ্যাঁ, ক্যাফেইনের বিকল্প এমন কিছু চায়ের কথাই আজ আমরা জানবো এই ফিচারে।
১। বার্লি চা
বার্লির ঠান্ডা প্রভাবের জন্য বিভিন্ন দেশের মানুষ বার্লি খেয়ে থাকে। বার্লি চা তৈরির জন্য ১ চা চামচ বার্লি ২ কাপ উষ্ণ পানিতে দিয়ে ফুটিয়ে নিন। বার্লি রক্তের চিনির মাত্রা নিয়ন্ত্রণে সাহায্য করে। বার্লিতে লীগন্যান্স নামক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট থাকে যা ক্যান্সার ও হৃদরোগের ঝুঁকি কমায়।
২। মৌরি চা
মৌরি একটি পরীক্ষিত উপাদান যা দেহের তাপ কমাতে সাহায্য করে বলে বহুলভাবে ব্যবহৃত হয়। ১ চা চামচ মৌরি বীজ পানিতে ফুটিয়ে নিয়ে তৈরি করা যায় মৌরি চা। আর মৌরি চায়ের মনোরম স্বাদ তো বোনাস হিসেবে পাবেন।
৩। জবা ফুলের চা
শুকনো জবা ফুলের পাপড়ি পানিতে ফুটিয়ে নিয়ে তৈরি করা যায় জবা চা। এর স্বতন্ত্র টক স্বাদ আছে এবং রুবি পাথরের মত লাল রঙ হয় এই চায়ের রঙ। এতে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান এবং কোলেস্টেরলের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করার ও যকৃত পরিষ্কার করার উপাদান আছে। তাই জবা চা হতে পারে আপনার সকালের আদর্শ পানীয়।
৪। তুলসী চা
গরমের চমৎকার পানীয় তুলসী বীজের যা। এটি ব্যপকভাবে ব্যবহৃত হয় এর ঠান্ডা করার গুণের জন্য। গরমের তাপকে দূর করার জন্য তুলসী বীজ গরম পানিতে দিয়ে চা তৈরি করুন। এর স্বাদ বৃদ্ধির জন্য এর সাথে পুদিনা পাতা বা লেবু মিশিয়ে নিতে পারেন।
৫। ধনিয়া চা
অ্যান্টি-ডায়াবেটিক এবং অ্যান্টি-ইনফ্লামেটরি গুণের কারণে বিভিন্ন রান্নায় ব্যবহার করা হয় ধনিয়া। ধনিয়ার চা আপনাকে শীতলতা দিতে পারে। ১ চা চামচ ধনে বীজ পানিতে দিয়ে ফুটিয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে ধনে চা।
৬। পুদিনা চা
পুদিনার শীতল প্রভাবের কথা আমরা সবাই জানি। ১ কাপ ধোঁয়া ওঠা গরম পানিতে কয়েকটি পুদিনা পাতা চূর্ণ করে দিন। এর সাথে কয়েকফোঁটা লেবুর রস যোগ করতে পারেন স্বাদ বৃদ্ধির জন্য। এবার চুমুক দিয়ে পান করুন পুদিনা চা আর শীতলতা পান।

আরও পড়ুনঃ   এই ৪ সময়ে পানি খাওয়া জরুরি

সাবেরা খাতুন

সূত্র: দ্যা হেলথ সাইট

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

11 + 13 =