খালি পায়ে ঘাসে হাঁটলে কী হয়?

0
129
walk on grass

প্রতিদিন সকালে সবুজ ঘাসের উপর হাঁটলে শরীরে রোগ বাসা বাধতে পারে না’- এমন কথা আমরা কমবেশি সবাই শুনেছি বয়োজ্যেষ্ঠদের কাছ থেকে। একাধিক গবেষণাতেও প্রমাণিত হয়েছে এমনই তথ্য। খালি পায়ে হাঁটার সঙ্গে আমাদের শরীরের ভালো থাকার সরাসরি যোগ রয়েছে বলে গবেষকরা জানিয়েছেন। সুস্থতার জন্য প্রতিদিন ভোরে খালি পায়ে কিছুক্ষণ ঘাসের উপর হাঁটাহাঁটি করা জরুরি।

  • গবেষকরদের মতে, সবুজ ঘাসের উপর খালি পায়ে হাঁটার সময় আমাদের শরীর থেকে নেগেটিভ এনার্জি বেরিয়ে যায়। সেই সঙ্গে মানসিক অস্থিরতা দূর হয়। এছাড়া মস্তিষ্কে বিশেষ কিছু হরমোনের ক্ষরণ বেড়ে যাওয়ার ফলে দূর হয় অনিদ্রার সমস্যা।
  • মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা বাড়াতে নিয়মিত খালি পায়ে হাঁটাহাঁটি শুরু করা উচিত বলে জানিয়েছেন রোগ বিশেষজ্ঞরা। এতে বুদ্ধি এবং স্মৃতিশক্তি বাড়ে।
  • খালি পায়ে হাঁটলে আমাদের পায়ের তলায় থাকা কিছু প্রেসার পয়েন্ট অ্যাকটিভ হয়ে যায়। ফলে মস্তিষ্ক এবং শরীর আরও বেশি করে অ্যাকটিভ হয়ে ওঠে।
  • রক্ত চলাচল স্বাভাবিক রাখতে প্রতিদিন কিছু সময় খালি পায়ে সবুজ ঘাসে হাঁটুন।
  • হার্টের রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা হ্রাস পায় খালি পায়ে হাঁটাহাঁটি করলে।
  • খালি পায়ে হাঁটলে বেশি বেশি রক্ত পৌঁছে যেতে শুরু করে হার্টে। ফলে পেশী এবং হাড় আরও মজবুত হয়ে ওঠে। সেই সঙ্গে হার্টের কর্মক্ষমতাও বৃদ্ধি পায়।
  • আমাদের পায়ের তলায় থাকা একাধিক সেন্সারি নার্ভ খালি পায়ে হাঁটার সময় অ্যাকটিভ হয়ে গিয়ে শরীরের ভেতরে পজেটিভ এনার্জি তৈরি করতে শুরু করে। ফলে ধীরে ধীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।
  • একাধিক গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিদিন ভোরে খালি পায়ে ঘাসের উপর হাঁটলে পায়ের তলায় থাকা একাধিক প্রেসার পয়েন্টে চপ পরতে শুরু করে। এসব প্রেসার পয়েন্টের সঙ্গে চোখের সরাসরি যোগ রয়েছে। ফলে দৃষ্টিশক্তির উন্নতি ঘটতে শুরু করে একই সঙ্গে।

তথ্যবোল্ডস্কাই   

খালি পায়ে হাঁটলে কি হতে পারে জানেন?

আরও পড়ুনঃ   অতিরিক্ত শরীর চর্চায় 'বাবা হওয়ার' সম্ভাবনা কমে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

ten + 15 =