খালি পেটে যে খাবার খেলে উপকারের চেয়ে ক্ষতি বেশি

0
139
খালি পেটে যে খাবার খাবেন না

সকালে ঘুম থেকে উঠেছেন। ক্ষুধা পেয়েছে, এখন কি করবেন? নিশ্চয় ক্ষুধা নিবারণের চেষ্টা করবেন। কিন্তু এই খালি পেটে প্রথম খাবারটি কি খাচ্ছেন সেটি জেনে-শুনে খাচ্ছেনতো? ভাল মনে করে খাচ্ছেন কিন্তু দেখা গেল যেটি খেয়েছেন সেটি বরঞ্চ আপনার জন্য ক্ষতি বয়ে আনলো। এমনই কিছু খাবার আছে যেগুলো শরীরের জন্য খুবই উপকারী হলেও খালি পেটে খাওয়ার জন্য তা ক্ষতি করছে। আসুন জেনে নিই।

শাকসবজিতে সাবধান: প্রচলিত ধারণা হলো, সবুজ শাকসবজি সব সময়ই স্বাস্থ্যের জন্য ভালো। এ নিয়ে কোনো বিতর্ক নেই। কিন্তু প্রশ্ন হলো, কোন অবস্থায় ভালো? সবুজ শাকসবজিতে রয়েছে প্রচুর অ্যামিনো অ্যাসিড। এই অ্যাসিড শরীরের জন্য যেমন ভালো, তেমনি খালি পেটে বিষম গ্যাস্ট্রিকের সৃষ্টি করতে পারে। শাকসবজির ‘ফাইবার’ ঠিকভাবে হজম না হলে তলপেটে ব্যথাও হতে পারে।

দুধ-সয়াবিন মিল্ক: দুধ হোক অথবা সয়াবিন মিল্ক। এতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন থাকে। কিন্তু খালি পেটে খেলে দুধে থাকা প্রোটিন শরীর পুরোমাত্রায় গ্রহণ করতে পারে না। ফলে, খালি পেটে দুধ খেলে সব সময় পাউরুটি, বিস্কুটের সঙ্গে খান।

ঝাল খাবার: সকালবেলা ঝাল মাংস দিয়ে পরোটা কিংবা খিচুড়ির সঙ্গে আচার খাওয়ার কথা ভাবতেই জিভে জল চলে আসে। তবে ঝালের কারণে পরে পেট ব্যথায় কুঁকড়ে থাকতে হতে পারে। কারণ খালি পেটে ঝাল খেলে তা পাকস্থলির আস্তরে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করবে, হতে পারে বদহজম ও বুক জ্বালাপোড়াও।

চা-কফি: সকালবেলা ঘুম থেকে ওঠার পরে এক কাপ চা অথবা কফি না খেলেই নয়। কিন্তু কখনওই খালি পেটে এই চা-কফি খাবেন না। কারণ, চায়ের মধ্যে অ্যাসিডের উপস্থিতি যথেষ্ট বেশি পরিমাণে থাকে। আর কফিতে থাকে ক্যাফেইন। খালি পেটে খেলে এই অ্যাসিড এবং ক্যাফেইন পাকস্থলীর আস্তরণের ক্ষতি করে দেয়। ফলে আর কিছু না হোক, খালি পেটে চা অথবা কফি খাওয়ার আগে অন্তত এক গ্লাস জল খেয়ে নেবেন।

টক ফল: টকজাতীয় ফলে প্রচুর এসিড থাকে। টকজাতীয় ফল খালি পেটে খেলে শরীরে অ্যাসিডের তৈরির পরিমাণ বাড়িয়ে দেয়। ফলে অস্বস্তি লাগতে পারে। এছাড়া ফলের অতিরিক্ত আঁশ ও ফ্রুকটোজ হজম পদ্ধতি ধীর করে দেয়। ফলে হজমে গণ্ডগোল বাঁধতে পারে সারাদিনই।

আরও পড়ুনঃ   চুমু খাওয়ার ১৯ স্বাস্থ্যগত উপকারিতা-চুমুর অপকারিতা কী?

কলা: তাৎক্ষণিক শক্তি জোগান দেয়ার জন্য কলার জুড়ি মেলা ভার। কলার অনেক পুষ্টিগুণও রয়েছে। কিন্তু খালি পেটে কখনও কলা খাবেন না। খালি পেটে কলা খেলে শরীরে ম্যাগেনসিয়ামের পরিমাণ বেড়ে গিয়ে রক্তে ম্যাগনেসিয়াম এবং ক্যালসিয়ামের মাত্রায় অস্বাভাবিক তারতম্য ঘটে, যার ফলে শারীরিক সমস্যা দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সোডা-কোল্ডড্রিংক: সোডা-কোল্ডড্রিংকে যে চিনি বা আর্টিফিশিয়াল সুইটনার থাকে, খালি পেটে খেলে সেগুলি শরীরের পক্ষে যথেষ্টই ক্ষতিকারক হতে পারে। কারণ, এই আর্টিফিশিয়াল সুইটনারের মধ্যে বিভিন্ন কার্বোনেটেড অ্যাসিডস থাকে, যেগুলি পাকস্থলীর অ্যাসিডের সঙ্গে মিশে গিয়ে পেট গোলানো অথবা বমি, বমি ভাব এবং বুক-জ্বালাও শুরু হতে পারে।

মশলাদার খাবার: খালি পেটে মশলাদার খাবার খেলে পাকস্থলীর স্বাভাবিক অ্যাসিডগুলির উপর প্রভাব পড়ে । এমনকি পাকস্থলীতে অ্যাসিডিক প্রতিক্রিয়াও হতে পারে। যার কারণে পেটে টান ধরা বা ব্যথা হতে পারে।

টমেটো: খেতে যতই ভালো লাগুক না কেন, খালি পেটে টমেটো কিন্তু যথেষ্ট ক্ষতিকারক। খালি পেটে খেলে টম্যাটোয় থাকা অ্যাসিডের সঙ্গে গ্যাসট্রোইনটেস্টাইনাল অ্যাসিড মিশে গিয়ে এক ধরনের জেল তৈরি হয়, যা থেকে পাকস্থলীতে পাথর পর্যন্ত জমতে পারে।

ক্রিয়াজাত চিনি: সকালে খালি পেটে চিনি খাওয়ার অভ্যাস দীর্ঘমেয়াদে যকৃত ও অগ্ন্যাশয়ের ক্ষতি করে। এমনটি খালি পেটে পেস্ট্রি, ডোনাট বা এই ধরনের খাবার খাওয়া থেকেও বিরত থাকা উচিত। কারণ এসব খাবারে প্রক্রিয়াজাত চিনি ছাড়াও ব্যবহার করা হয় ইস্ট। এগুলো পাকস্থলির আস্তরে জ্বালাপোড়া তৈরি করে। পাশাপাশি হতে পারে পেট-ফাঁপাভাব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eleven + two =