ঘর পরিষ্কার রাখবে বেকিং সোডা ও ভিনেগার: ২২টি বিস্ময়কর উপকারিতা জেনে রাখুন

0
57
বেকিং সোডা ও ভিনেগার

থালাবাটি মাজতে অনেকে সাবান ব্যবহার করেন আবার কেউ বা ডিটারজেন্ট পাউডার ব্যবহার করেন। কিন্তু তারপরও দেখা যায় সেগুলো পুরোপুরি পরিষ্কার হয় না। আবার পরিষ্কার হলেও জীবাণু থেকে যায় কি না তা নিয়েও কাজ করে সংশয়। আর গন্ধের কথা নাই বা বললাম। কারণ ব্যবহার করা জিনিসগুলো অনেকবার ধোয়ার পরও আলাদা একটা গন্ধ থেকেই যায়। এই সমস্যার সমাধান করতে ব্যবহার করতে পারেন বেকিং সোডা ও ভিনেগার।ভিনেগার বা সিরকা হলো এক ধরনের তরল পদার্থ। । এ দুটি জিনিস আমাদের হাতের নাগালেই থাকে। ঘর পরিষ্কার রাখার জন্য বেকিং সোডা এবং ভিনেগারের তুলনা হয় না। দৈনন্দিন ব্যবহারের কারণে রান্নাঘর থেকে শুরু করে নোংরা থাকে বাথরুম পর্যন্ত। সময় স্বল্পতার কারণে পরিষ্কার না করায় জমতে থাকে ময়লা। তাই বেকিং সোডা ও ভিনেগারের মিশ্রণ দিয়ে অল্প সময়েই পরিষ্কার করে তুলুন আপনার ঘর। যেমনঃ

• রান্নার সময় মসলার দাগ কিংবা তেল পরে চুলার ওপর, যা জমে শক্ত হয়ে যায়। এই দাগ দূর করার জন্য একটি বাটিতে ২ চা চামচ বেকিং সোডা, ১ চা চামচ লিকুইড সাবান এবং ১ চা চামচ ভিনেগার মিশিয়ে দাগের ওপর দিয়ে রাখুন। ৩০ মিনিটের পর ব্রাশ দিয়ে ঘষে, কাপড় দিয়ে মুছলেই উঠে যাবে দাগ।

• অনেক সময় বেসিনের মুখে জমে যায় পানি। এই সমস্যা দূর করার সহজ উপায় হলো, বেসিনের মুখে ২ চামচ বেকিং সোডা দিয়ে তার উপর ভিনেগার ঢালুন। কিছুক্ষণ পর গরম পানি ঢেলে দিন।

• বাথরুমের ফ্লোরের হলুদ দাগ দূর করার জন্য প্রয়োজন হবে বেকিং সোডা ও লিকুইড সাবানের। দাগের ওপর সোডা এবং সাবান মাখিয়ে রাখুন। কিছুক্ষণ অপেক্ষা করার পর ব্রাশ দিয়ে ঘষে দাগ তুলে ফেলুন।

• কার্পেটের মধ্যে অনেক সময় খাবার কিংবা পানীয় পরে দাগ হয়ে যায়। তাই প্রথমে দাগের ওপর ভিনেগার দিয়ে ভিজেয়ে নিন। ভিনেগারের ওপর বেকিং সোডা দিন। কিছু সময় পর সাদা কাপড় দিয়ে দাগটি ঘষুন এবং শুকাতে দিন।

• ফ্রিজ কিংবা ওভেন পরিষ্কার রাখার জন্য ১ কাপ গরম পানিতে আধা কাপ ভিনেগার এবং ২ টেবিল চামচ বেকিং সোডা ভালো করে মিশিয়ে নিন। এরপর ফ্রিজ বা ওভেনের ওপর স্প্রে করে সুতির নরম কাপড় দিয়ে মুছে ফেলুন।

আরও পড়ুনঃ   নন স্টিকের পাত্র দীর্ঘদিন ভালো রাখার উপায়

• ইস্ত্রি বা চামচে অনেক সময় মরিচা পরে যায়। এই মরিচার দাগ তোলার জন্য ইস্ত্রির ওপর ভিনেগার স্প্রে করে কাগজ দিয়ে ঘষুন। মরিচা দাগ হালকা উঠে গেলে তার উপর বেকিং পাউডার দিয়ে ভালোভাবে ঘষুন। এবার ইস্ত্রিটি মুছে ফেলুন। অন্যদিকে, চামচ থেকে দাগ তোলার জন্য একটি পাত্রে বেকিং সোডার সঙ্গে পানি মিশিয়ে পেস্ট বানিয়ে ফেলুন। এরপর আঙুলের সাহায্যে পেস্টটি চামচের ওপর লাগিয়ে ঘষুন।

সূত্রঃ আরটিভিঅনলাইন

বেকিং সোডা ও ভিনেগার দিয়ে পরিষ্কার হয় এমন কিছু বিষয় তুলে ধরা হয়েছে রিডার্স ডাইজেস্টে। চলুন একনজরে দেখে নিই এর ব্যবহার :

রান্নাঘরের স্টিলের সিংক পরিষ্কারে

নিয়মিত ব্যবহারে রান্নাঘরের সিংকে দাগ পড়ে, যা সাধারণ ডিটারজেন্ট পাউডার দিয়ে যায় না। এই সমস্যার সমাধানে বেকিং সোডা ও ভিনেগার ব্যবহার করতে পারেন। প্রথমে সিংক পানি দিয়ে ভিজিয়ে নিন। এরপর সিংকের ওপর বেকিং সোডা দিয়ে কিছুক্ষণ পর স্ক্রাবার দিয়ে ভালো করে ঘষে নিন। এরপর একটি নরম টুথব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করুন। একটি তোয়ালে ভিনেগার দিয়ে ভিজিয়ে ২০ মিনিটের জন্য পুরো সিংকটি ঢেকে রাখুন। ২০ মিনিট পর তোয়ালে দিয়ে সিংকটি মুছে ফেলুন। এরপর গরম পানির মধ্যে লেবুর রস এবং ডিটারজেন্ট দিয়ে সিংক ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন, সিংকটি নতুনের মতো ঝকঝক করবে।

সিংক ও বেসিনের ড্রেন পরিষ্কারে:

প্রথমে ড্রেনের মধ্যে এক কাপ বেকিং সোডা দিন। এরপর এর মধ্যে সাদা ভিনেগার দিয়ে কিছুক্ষণ রেখে দিন। গরম পানি দিয়ে পুরো ড্রেন ধুয়ে ফেলুন। এরপর দুই কাপ বরফ ও লবণ ড্রেনে ঢেলে দিন। এরপর লেবুর রস মেশানো পানি ঢেলে দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ড্রেনের স্যাঁতসেঁতে ভাব দূর হবে এবং গন্ধও থাকবে না।

বাথরুম ক্লিনার:

বাথরুম পরিষ্কারে কত কী-ই না ব্যবহার করি। কিন্তু সেই দাগ থেকেই যায়। এ ক্ষেত্রে তিন কাপ বেকিং সোডা, আধা কাপ লিকুইড ডিটারজেন্ট, আধা কাপ পানি, দুই টেবিল চামচ সাদা ভিনেগার একসঙ্গে মিশিয়ে একটি বোতলে নিয়ে ভালো করে ঝাঁকিয়ে নিন। এরপর মিশ্রণটি পুরো বাথরুমে ছড়িয়ে দিন। কিছুক্ষণ রাখার পর ভালো করে ঘষে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন বাথরুমের দাগ, গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

আরও পড়ুনঃ   ফ্রিজে গরুর মাংস কতদিন রাখা যায়?

অথবা সাদা ভিনেগার ও বেকিং সোডা একসঙ্গে মেশান। স্প্রে বোতলে নিয়ে বাথরুমের কমোডে ছিটিয়ে দিন। কিছুক্ষণ পর ফ্ল্যাশ করে ফেলুন। দেখুন কেমন ঝকঝকে হয়ে গিয়েছে কমোড! একইভাবে টয়লেটের মেঝেও পরিষ্কার করতে পারবেন এই দ্রবণটি দিয়ে। দ্রুত টয়লেট পরিষ্কার করতে সাদা ভিনেগার সরাসরি ব্যবহার করতে পারেন। এর অ্যাসিডিক উপাদান দূর করবে কমোডের হলদে দাগ।

কার্পেটের দাগ দূর করতে

কার্পেটের দাগ সহজে যেতে চায় না। এই সমস্যার সমাধানে সাদা ভিনেগারের সঙ্গে দুই টেবিল চামচ লবণ মিশিয়ে দাগের ওপর দিন। এরপর শুকিয়ে গেলে ভ্যাকুইম ক্লিনার দিয়ে পরিষ্কার করে ফেলুন।

কাপড় পরিষ্কারে

কাপড় ধোয়ার ডিটারজেন্টের মধ্যে আধা কাপ বেকিং সোডা মিশিয়ে নিন। এরপর এই মিশ্রণে কাপড় ভিজিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেলুন। বেকিং সোডা সাদা কাপড়কে আরো সাদা করে। বেকিং সোডা দিলে ডিটারজেন্ট কম দিলেও চলবে।

ফ্রিজ পরিষ্কার করে

ভিনেগার ফ্রিজ পরিষ্কারে বেশ কার্যকরী। একটি কাপড় বা তোয়ালে ভিনেগার দিয়ে ভিজিয়ে পুরো ফ্রিজ মুছে নিন। এতে ফ্রিজের দাগ, ব্যাকটেরিয়া ও গন্ধ সব দূর হয়ে যাবে।

আরও ১০টি ব্যবহার জেনে নিন

মরিচা দূর করতে
ভিনেগারের অ্যাসিডিক উপাদান আয়রন অক্সাইডের সাথে বিক্রিয়া করে মরিচা দূর করতে সহায়তা করে ছোটো ধাতব জিনিস থেকে। মরিচা পড়া ধাতব জিনিস ভিনেগারে ডুবিয়ে রাখুন খানিকক্ষণ এরপর কাপড় দিয়ে ঘষেই দূর করতে পারবেন মরিচা।

তেল চিটচিটে দূর করতে: বাসনপত্রে কিংবা রান্নার প্যানে অনেক সময় তেল চিটচিটে ভাব চলে আসে যা খুবই বিরক্তিকর। কিন্তু ভিনেগারের মাধ্যমে এই তেল চিটচিটে ভাব দূর করতে পারবেন সহজেই। একটি মাজুনিতে ভিনেগার দিয়ে বাসন বা প্যানটি মেজে নিন। ৫ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন তেল চিটচিটে ভাব একদম নেই।

বাটির গন্ধ

অনেক সময়ই খাবার ভুলক্রমে পচে যায় বাটিতে। বাটি ধোঁয়ার পরেও এই খাবার পচা গন্ধ যেতে চায় না। এই পচা গন্ধ দূর করতে চাইলে একটি কাপড়ে ভিনেগার লাগিয়ে তা বাটিতে রেখে দিন ঘণ্টাখানেক। ভিনেগার পচা গন্ধ দূর করে দেবে।

আরও পড়ুনঃ   রান্নাঘরের ইলেক্ট্রনিক জিনিস বা গ্যাজেটের যত্ন নিবেন যেভাবে

কাগজের স্টিকার

কোনো জিনিসের গায়ে লেগে থাকা কাগজের স্টিকার বেশ বিরক্তিকর। এটি তুলতে সাহায্য করবে ভিনেগার। একটি পাত্রে সামান্য ভিনেগার গরম করুন। এরপর এই গরম ভিনেগার একটি পরিষ্কার কাপড়ের সাহায্যে স্টিকারের গায়ে লাগান। স্টিকারটি ভালো করে ভিজে গেলে আস্তে করে টান দিয়ে স্টিকার তুলে ফেলুন।

চা কফির দাগ

চা অথবা কফির পেয়ালাটি কালচে পরে গেছে? তাহলে পেয়ালাটি ভিনেগার দিয়ে ধোয়ে নিন, একদম চকচকে হয়ে যাবে।

ডিশ ডিটারজেন্ট হিসেবে গৃহস্থালির বিভিন্ন পণ্য যেমন থালা-বাসন পরিষ্কার করার জন্য ডিশওয়াশারের সঙ্গে আপেল সিডার ভিনেগার মিশালে খুবই দরকারি ডিটারজেন্ট হিসেবে কাজ করবে।

মেঝে পরিষ্কার করতে: আধা গ্যালন উষ্ণ পানির সঙ্গে আধা কাপ সাদা ভিনেগার মিশিয়ে মেঝে মুছে নিন। পরিষ্কার হয়ে যাবে মেঝে।

দেয়াল থেকে বলপয়েন্টের দাগ তুলতে: বাসায় শিশু থাকলে দেয়ালে আঁকিবুঁকি নিত্য দিনের ঘটনা! দেয়ালে বলপয়েন্টের দাগ লাগলে ভিনেগার নিয়ে দাগের উপর লাগান। তারপর কাপড় কিংবা স্পঞ্জ দিয়ে ঘষুন। দাগ চলে যাবে।

টিফিন বক্সের দুর্গন্ধ দূর করতে: অনেক সময় প্রতিদিন ব্যবহারের ফলে এক ধরনের ভ্যাপসা গন্ধ হয়ে যায় লাঞ্চ বা টিফিন বক্সে। এ সমস্যার সমাধানে এক টুকরা পাউরুটি সাদা ভিনেগারে ভিজিয়ে সেটা রাতভর রেখে দিন বক্সে। সকালে উঠে দেখবেন গন্ধ বেমালুম গায়েব!

রূপার গহনার উজ্জ্বলতা বাড়াতে: শখের রূপা গহনা কালচে হয়ে গেলে পরিষ্কার করতে পারেন ভিনেগার দিয়ে। আধা কাপ সাদা ভিনেগার ও ২ টেবিল চামচ বেকিং সোডা একসঙ্গে মিশিয়ে রূপার গহনা ডুবিয়ে রাখুন ২/৩ ঘন্টা। তারপর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে শুকনা কাপড় দিয়ে মুছে নিন। আগের মতো চাকচিক্য ফিরে আসবে গহনায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × three =