চুলের যত্নে তিলের তেল

0
242
চুলের যত্নে তিলের তেল

চুলের যত্নে তিলের তেল বেশ সমাদৃত। এটি চুলের গভীরে গিয়ে পুষ্টি জোগায়, চুলকে ঘন কালো, রেশমি ও সিল্কি করতে বেশ কার্যকর। তিলের তেলের উপকার বৈজ্ঞানিকভাবে প্রমাণিত।

এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই, বি কমপ্লেক্স ও খনিজ যেমন— ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেসিয়াম, ফসফরাস, প্রোটিন সমৃদ্ধ।

মাথার ত্বকের চুলকানি কমায়

অনেক সময় মাথার ত্বকের সংক্রমণের কারণে মাথায় চুলকানির সমস্যা হয়। তিলের তেল সহজেই এই সংক্রমণ দূর করে। এই তেল হালকা গরম করে মাথার ত্বকের ম্যাসাজ করুন। দেখবেন, ধীরে ধীরে মাথার তালুর সংক্রমণ দূর হবে।

প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করে

তিলের তেল চুলে প্রাকৃতিক কন্ডিশনারের কাজ করে। ডিপ কন্ডিশনারের কাজ করে এটি। ঝলমলে চুল পেতে প্রথমে তিলের তেল হালকা গরম করে মাথার ত্বকে পাঁচ থেকে ১০ মিনিট ভালোভাবে ম্যাসাজ করুন। আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করুন। এবার পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

ক্ষতিগ্রস্ত চুল পুনরুজ্জীবিত করতে

ক্ষতিগ্রস্ত চুল পুনরুজ্জীবিত করতে তিলের তেল বেশ কার্যকর। এটি গভীরে গিয়ে চুলকে ক্ষতি থেকে রক্ষা করে। এটি সমানভাবে মাথার ত্বকে ও গভীরে গিয়ে কাজ করে।

চুল পড়া কমায়

দুশ্চিন্তার কারণে অনেক সময় চুল পড়ে যায়। প্রতিদিন ঘুমানোর আগে মাথায় তিলের তেল দিয়ে ম্যাসাজ করুন। দেখবেন, দুশ্চিন্তা দূর হবে, ঘুম ভালো হবে ও চুল পড়া অনেকটা কমে যাবে।

উকুন থেকে মুক্তি

উকুন থেকে মুক্তি পেতে তিলের তেল ব্যবহার করতে পারেন। এর অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল মাথার ত্বকের ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাকের সঙ্গে যুদ্ধ করে উকুন থেকে মুক্তি দেয়।

চুল লম্বা করে

তিলের তেল মাথার ত্বক নরম করে, রক্ত চলাচলের উন্নতি করে এবং চুলকে আরও লম্বা করে। এটি চুলের স্বাস্থ্য ফিরে পেতে সাহায্য করে। এর প্রতিদিনের ব্যবহার চুলের মান উন্নত করতে পারে।

চুলের রুক্ষতা দূর করে

চুলের রুক্ষতা দূর করতে প্রতিদিন চুলে তিলের তেল ম্যাসেজ করুন। এটি চুলের প্রাণ ফিরিয়ে দিয়ে চুলকে ঘন কালো করবে। এটি আপনার চুলের রুক্ষতা দূর করে চুল নরম ও মসৃণ করবে।

আরও পড়ুনঃ   তিল ও তিলের তেলের চমকপ্রদ স্বাস্থ্য উপকারিতা

খুশকি দূর করে

তিলের তেল মাথার খুশকি দূর করতে সাহায্য করে। এটি হালকা গরম করে মাথার তালুতে কিছু সময় ম্যাসেজ করুন। পরে চুল ধুয়ে ফেলুন। ভালো ফল পেতে এক সপ্তাহ ব্যবহার করুন এবং বিশাল পার্থক্য লক্ষ করবেন।

নতুন চুল গজাতে সাহায্য করে

তিলের তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলে মাথার ত্বকের রক্ত সঞ্চালন বেড়ে যায়। এর ফলে নতুন চুল গজায়। এই তেল চুলকে গভীর থেকে সুস্থ রাখে এবং নিয়মিত ব্যবহারে চুলের ভেঙে যাওয়া সমস্যা দূর হয়।

তিলের তেলে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ই ও বি, ক্যালসিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম, ফসফরাস ও প্রোটিন রয়েছে; যা চুল সুস্থ রাখতে খুবই জরুরি। নিয়মিত মাথার ত্বকে ও চুলে তিলের তেল দিয়ে ম্যাসাজ করলে চুল পড়া কমে, খুশকি দূর হয়, নতুন চুল গজায়, চুলের গোড়া শক্ত হয়, চুলের রুক্ষতা ও মাথার ত্বকের সংক্রমণ জাতীয় সমস্যা দূর হয়।

আরও পড়ুনঃ তিলের তেলের মালিশের ১০ টি উপকারিতা

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

12 − seven =