জিন্স পরেন? সাবধান! জিন্স পরিধানে আপনি হারাতে পারেন দাম্পত্য সুখ!

0
জিন্স পরিধান, দাম্পত্য সুখ

স্কিনটাইট জিন্স পরিধান করা স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর। জার্নাল অব নিউরোলজির এক প্রতিবেদনে সম্প্রতি এমনটিই বলা হয়েছে। এতে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ায় ৩৫ বছরের এক নারী সম্পতি রয়েল অ্যাডেলেইড হাসপাতালে এসে ভর্তি হন। তার মাংসপেশি অবশ হয়ে গেছে। অনুভূতিও কাজ করছে না তার। ডাক্তার সার্বিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর বিষয়টি ধরতে পারেন। তিনি বলেন, টাইট জিন্স প্যান্ট পরার কারণেই মহিলার এ সমস্যাটি হয়েছে। একে বলা হয় কম্পার্টমেন্ট সিন্ড্রোম। জিন্স পরে অনেকক্ষণ বসে থাকার কারণে তার হাঁটুর মাংসপেশিতে ভীষণ চাপ পড়ে। এতে হাঁটুর মাংসপেশির ভেতরে রক্তক্ষরণ হয়। সেই সাথে হাঁটুর অভ্যন্তরের মাংসপেশি ফুলে যায়। এতে অনুভূতিও লোপ পায় তার। হাসপাতালে ওই মহিলাকে চার দিন থেকে চিকিৎসা নিতে হয়েছে। এ বিষয়ে ফিজিওথেরাপির একজন ডাক্তার বলেন, স্কিনটাইট জিন্স পরা যাবে না, এটা বলছি না। তবে এ ধরনের প্যান্ট পরে এক নাগাড়ে অনেকক্ষণ বসে থাকা বা হাঁটুতে প্রেসার দিয়ে স্থির হয়ে থাকা যাবে না। সূত্রঃ ইন্টারনেট

ছেলে-বুড়ো, নারী-পুরুষ নির্বিশেষে গোটা বিশ্বই এখন জিন্স প্যান্টের দখলে। নানা রূপে জিন্স মানুষের মন জয় করেছে কয়েক দশক আগেই। অন্য পোশাকে অভ্যস্তরাও মাঝে মধ্যেই জিন্স বেছে নেন। স্টাইল বদলায় কিন্তু জিন্স থেকেই যায়। তবে জিন্সের বিপদও আছে। কেননা জিন্স পরিধানে আপনি হারাতে পারেন আপনার দাম্পত্য সুখ! চলুন জেনে নেওয়া যাক জিন্স সম্পর্কে কিছু তথ্য-

১. প্রথমেই খেয়াল রাখতে হবে জিনসটি কী কাপড়ে তৈরি। সুতির জিনসই পরা উচিত। কিন্তু অনেক সময়ই সুতির সঙ্গে টেরিকটন জিন্সও বাজারে পাওয়া যায়। সেগুলি ত্বকের জন্য মোটেও ভালো নয়।

২. অনেকেই এক্কেবারে শরীর চাপা লো-ওয়েস্ট জিন্স পরেন। বিশেষজ্ঞরা বলেন, শরীরের সঙ্গে একেবারে সেঁটে থাকায় রক্ত চলাচলে বিঘ্ন ঘটে। যা থেকে স্নায়ু-ঘটিত সমস্যা হতে পারে।

৩. ‘স্কিনি জিনস’ পুরুষদের পক্ষে মারাত্মক ক্ষতিকারক। শরীরের বিভিন্ন অঙ্গের স্বাভাবিক ক্রিয়ায় প্রভাব ফেলে। মূত্রনালি, মূত্রথলিতে ইনফেকশন ছাড়াও অণ্ডকোষের সমস্যায় আক্রান্ত হওয়ার ভয় থাকে। চিকিৎসকরা বলেন, বীর্যধারণ ক্ষমতাও কমিয়ে দিতে পারে স্কিন টাইট জিন্স।

আরও পড়ুনঃ   সুন্দর স্বাস্থ্য পেতে যা করবেন!

৪. এমন জিন্স পরা উচিত, যা শরীর সঙ্গে প্রবলভাবে সেঁটে থাকবে না। শরীর ও প্যান্টের মধ্যে জায়গা থাকা জরুরি। আঁটোসাঁটো জিনস কিডনিরও ক্ষতি করতে পারে।

৫. মেয়েদের ক্ষেত্রে স্কিন টাইট জিন্স অত্যন্ত ক্ষতিকারক। এখন ‘লো-ওয়েস্ট’ জিন্স খুব চলছে। কিন্তু গবেষণা বলছে, টাইট, স্কিনি লো-ওয়েস্ট জিন্স স্নায়ু বিকল করে দিতে পারে। মাঝে মাঝ পা অবশ হয়ে যেতে পারে। টাইট জিন্সের অন্যান্য সমস্যা তো আছেই।

৬. টাইট জিন্স বেশি সময় পরে থাকলে যৌনাঙ্গের ওপর অস্বাভাবিক চাপ তৈরি হয়। এই ধরনের জিন্স পরলে মেয়েদের বিশেষ ভঙ্গিতে পা ভাঁজ করে বসতে হয়। সাম্প্রতিক গবেষণা বলছে, পা ভাঁজ করে বসা শরীরের পক্ষে মারাত্মক ক্ষতিকর।

            আঁটসাঁট জিন্স স্বাস্থের জন্য ক্ষতিকর

বর্তমান সময়ে নারী-পুরুষ অনেকেরই আঁটসাঁট জিন্স পরিধান করা পছন্দ। বিশেষ করে মেয়েরা আঁটসাঁট জিন্স পরিধান করতে বেশি ভালবাসে। তবে একেবারে আঁটসাঁট জিন্স পরার বিরুদ্ধে সতর্ক করে দিয়ে চিকিৎসকরা বলছেন, এরকম পোশাক শরীরের পেশি এবং নার্ভের ক্ষতি করতে পারে। আর্ন্তজাতিক সংবাদ সংস্থা বিবিসির এক খবরে এ কথা জানানো হয়েছে।। খবরে আরো বলা হয়, সম্প্রতি অস্ট্রেলিয়ার ৩৫ বছরের এক নারী পায়ের গোড়ালি ফুলে ঢোল হয়ে যায়। আঁটসাঁট জিন্স পরিধান করার কারণে তার পরনের ট্রাউজার্স ডাক্তারদের কাঁচি দিয়ে কেটে খুলে নিতে হয়েছে। ওই মহিলা বাড়ি বদলের জন্য তার ঘরের জিনিসপত্র গোছানোর সময় দীর্ঘক্ষণ মাটিতে পা মুড়ে বসে কাজ করছিলেন। সন্ধ্যা নাগাদ তার পা পুরোপুরি অবশ হয়ে যায় এবং তিনি আর হাঁটতে পারছিলেন না। জার্নাল অব নিউরোসার্জারি অ্যান্ড সাইক্রিয়াট্রিতে চিকিৎসকরা এই মহিলার ঘটনা উল্লেখ করে ‘স্কিনি জিন্স’ বা আঁটসাঁট জিন্স না পরার জন্য সতর্ক করে দিয়েছেন। চিকিৎসকদের ধারণা, এই মহিলা ‘কম্পার্টমেন্ট সিনড্রোমে’ আক্রান্ত হয়েছিলেন। শরীরের একগুচ্ছ পেশি রক্তপাত এবং ফুলে যাওয়ার কারণে যে অবস্থার তৈরি হয় তাকেই চিকিৎসকরা ‘কম্পার্টমেন্টাল সিনড্রোম’ বলেন। এটি বেশ গুরুতর রূপ নিতে পারে। স্কিন জিন্স গত এক দশক ধরে ফ্যাশন সচেতন মেয়েদের কাছে খুবই জনপ্রিয় পোশাক। তবে এরকম পোশাকের বিরুদ্ধে এই প্রথম চিকিৎসকদের কাছ থেকে সতর্কবাণী শোনা গেল।

আরও পড়ুনঃ   নিয়মিত ঝাল খাবার খান? তাহলে জানুন

শুক্রাণু কমে যাওয়ার কারণ-যেসব বদভ্যাস শুক্রাণুর ক্ষমতা কমিয়ে দেয়

Jeans wear lost bridal happiness!

The whole world is now holding jeans pants irrespective of age, old age, men and women. In many ways jeans have won the minds of people decades ago. In other attire, the attendants often chose jeans. Style changed but jeans remained. But there is danger of jeans. Because you can wear jeans, your bridal happiness! Let’s know some information about jeans-

1. First of all, keep in mind that the jeans are made of cloth. Should wear cotton yarns. But sometimes it is available in the market with tarticon jeans. They are not good for the skin.

2. Many people wear loose-low-waist jeans on the skin. Experts say that due to the body being completely bent, the movement of blood is interrupted. Which may cause nervous problems.

3. ‘Skinny jeans’ are harmful to men. The normal function of various organs of the body is affected. Apart from urinary and urinary tract infections, there is fear of being infected with testicular problems. Doctors said that spin-tight jeans may also reduce the ability of sperm.

4. Should wear jeans that do not bend strongly with the body. It is important to have space between body and pants. Genuine jeans may harm kidneys.

5. Skin tight jeans are extremely harmful for girls. Now the ‘Low -West’ jeans are running very fast. But research says that tight, skinny low-witted jeans may cure the nerves. Sometimes the middle legs may become numb. There are other problems of tight jeans.

আরও পড়ুনঃ   পর্নগ্রাফি আসক্তির নেতিবাচক প্রভাবগুলোর ব্যাপারে জানেন কি?

6. When tight jeans have more time, unusual pressure on genitalia is created. In this type of jeans, girls have to fold their legs in special positions. Recent studies have said that it is very harmful for the body to fold the legs.

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × two =