টমেটোর জুসের স্বাস্থ্যগুণ

0
128
টমেটোর জুস

টমেটো দিয়ে চাটনি, ডাল, মাছের ঝোল, কোন কিছুই বাদ দেন না তারা। আর সালাদে তো লাগবেই। কিন্তু টমেটোর জুসেরও রয়েছে অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা। যা আমাদের অনেকেরই অজানা।

প্রতিদিন এক গ্লাস করে টমেটোর জুস খাওয়া প্রত্যেকেরই উচিৎ। টমেটোর জুসকে বলা হয় ‘সুপার ফুড’। এতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন ও মিনারেল। শরীর সুস্থ রাখতে টমেটোর জুসের জুড়ি মেলা ভার।

ওজন কমায়:
দেহে পানির পরিমাণের ভারসাম্য বজায় রাখে। জুসের ‘লো সোডিয়াম ও হাই ফাইবার’ উপাদান অনেকক্ষণের জন্য আপনার খিদে মিটিয়ে রাখে। শরীরকে দুর্বল বোধ করতে দেয় না।

কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ করে:
রোজ এক গ্লাস করে টমেটোর জুস খেলে নিয়ন্ত্রণে থাকবে কোলেস্টেরল। টমেটোর জুসে প্রচুর পরিমাণে ফাইবার, যা রক্তে LDL বা ব্যাড কোলেস্টেরলের পরিমাণ কমায়।

ডিটক্সিফিকেশন:
টমেটোর জুসে থাকে ক্লোরিন ও সালফার। যা আপনার শরীর থেকে টক্সিন দূর করে ডিটক্স করতে সাহায্য করে।

ত্বকের জন্য ভালো:
দাগমুক্ত ও উজ্জ্বল ত্বক পেতে চাইলে রোজ এক গ্লাস করে টমেটোর জুস খাওয়া অবশ্যই উচিত। টমেটোর জুস চামড়ার ট্যান দূর করে, ত্বকের কালো ছোপ দূর করে। সেই সঙ্গে অ্যাকনে ও ব্রণ নিরাময় করে। রোমকূপ বুজিয়ে দেয়। তৈলাক্ত ত্বকের সিবাম ক্ষরণ নিয়ন্ত্রণ করে।


 জে এইচ
আরও পড়ুনঃ   যে ১০টি স্বাস্থ্য সমস্যায় কলা ঔষধের চেয়েও ভালো!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

fourteen + 3 =