ডিম আমিষ না নিরামিষ?এবার জানিয়েই দিলেন বিজ্ঞানীরা

0
ডিম আমিষ না নিরামিষ

‘ডিম আগে নাকি মুরগি আগে?’ এই জটিল ধাঁধার সমাধান যেমন আজ পর্যন্ত হয়নি, তেমনই ডিম আমিষ না নিরামিষ? এই বিতর্কের সমাধান অধরা। অবশেষে বিজ্ঞানীরা জানিয়েই দিলেন, খাদ্যতালিকায় ডিমের আসল অবস্থান।

রোজের খাবারের তালিকায় ডিম থাকে না এমন মানুষ মেলা ভার। তবে আমিষ ভেবে অনেকেই ডিম থেকে দূরে থাকেন। কারণ, ডিম মুরগির শরীর থেকে তৈরি হয়। আর মুরগি জীবন্ত জিনিস। এই যুক্তিতেই একাংশের মত ডিম আমিষ। তবে পালটা যুক্তিও রয়েছে।

তবে বিস্তর গবেষণার পর বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন ডিম মোটেও আমিষ নয়, বরং নিরামিষ। তাঁদের যুক্তি, ডিমের ৩টি অংশ। ডিমের খোসা, কুসুম এবং সাদা অংশ। গবেষণা বলছে ডিমের সাদা অংশ শুধুমাত্র প্রোটিন দিয়ে তৈরি। আর কুসুমে রয়েছে প্রোটিন ও কোলেস্টেরল। একটি মুরগি ৬ মাস বয়স হওয়ার পর থেকে প্রতি দেড় দিনে একটি করে ডিম পাড়তে পারে। ডিম পাড়ার আগে মুরগির যৌনমিলনেরও প্রয়োজন হয় না। তাই এই সব ডিম নিষিক্ত নয়। সাধারণত এই সব ডিমই আমরা বাজার থেকে কিনি। তাই ডিমকে কোনও ভাবেই আমিষ বলতে রাজি নন বিজ্ঞানীরা।

যে ডিম খেলে ক্যান্সার ভালো হবে-ডিমের পুষ্টি

আরও পড়ুনঃ   ডিম খেলে স্মৃতিশক্তি বাড়ে

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

1 × 1 =