তেঁতুলের তিন গুন

0
তেঁতুলের উপকারিতা

তেঁতুল খেলে নাকি শরীর খারাপ হবে। আগে এমনটাই ভাবতো লোকজন। কিন্তু তেঁতুল খাওয়ার যে কত উপকারিতা সেটি জানতো ক-জনই। এক নজরে মিলিয়ে নিন তেঁতুলের তিন গুন।

হজমশক্তি বৃদ্ধি এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর:

পেট ব্যথা বা কোষ্ঠকাঠিন্যর মতো সমস্যা থেকে সমাধান পেতে চাইলে তেঁতুলের সাহায্য নিন। তেঁতুলের মধ্যে টার্টারিক অ্যাসিড‚ ম্যালিক অ্যাসিড এবং পটাশিয়াম আছে যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে। এখনো আয়ুর্বেদে তেঁতুল পাতা ডায়রিয়া সারাতে ব্যবহার হয়।

ওজন কমায়:

তেঁতুলে উচ্চ মাত্রায় ফাইবার আছে আর একই সঙ্গে এটা সম্পূর্ণ ফ্যাট ফ্রি। রিসার্চ করে দেখা গেছে রোজ তেঁতুল খেলে ওজন কমে। এর জন্যে দায়ী এতে উপস্থিত flavonoids and polyphenols।  এছাড়াও এতে উপস্থিত hydroxycitric acid খিদে কমায়।

ত্বক উজ্জ্বল করে:

প্রমাণ হয়ে গেছে তেঁতুল ক্ষতিকারক আলট্রা ভায়োলেট এর হাত থেকে ত্বককে বাঁচাতে সাহায্য করে। এছাড়াও যাদের অ্যাকনে আছে তাদের জন্যেও উপকারী তেঁতুল। এছাড়াও তেঁতুলে উপস্থিত হাইড্রক্সি অ্যাসিড ত্বকের এক্সফলিয়েশন করতেও সাহায্য করে যার ফলে মরা কোষ উঠে যায় এবং ত্বক উজ্জ্বল দেখায়।

পুষ্টিগুণ : তেতুলে ক্যালসিয়ামের পরিমান সব ফলের চেয়ে ৫ থেকে ১৭ গুন বেশি। আয়রনের পরিমান নারিকেল ছাড়া সব ফলের চেয়ে ৫ থেকে ২০ গুন বেশি। অন্যান্য পুষ্টি উপাদান স্বাভাবিক পরিমানে আছে। প্রতি ১০০ গ্রাম পাকা তেতুলে মোট খনিজ পদার্থ ২.৯ গ্রাম, খাদ্যশক্তি ২৮৩ কিলোক্যালরি, আমিষ ৩.১ গ্রাম, চর্বি ০.১ গ্রাম, শর্করা ৬৬.৪ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ১৭০ মিলিগ্রাম, আয়রন ১০.৯ মিলিগ্রাম, ক্যারোটিন ৬০ মাইক্রোগাম ও ভিটামিন সি ৩ মিলিগ্রাম। সব মিলিয়ে তাই তেতুল খেতে পারেন আপনিও।

আরও পড়ুনঃ

তেঁতুলের কিছু অজানা উপকারিতা

মেয়েদের তেঁতুল খেতে বলা ও ছেলেদের তেঁতুল খেতে নিষেধ করা প্রসঙ্গে -আসলে কী তেঁতুল একটি উপকারী ফল?

আরও পড়ুনঃ   কিশমিশের ৭টি স্বাস্থ্য উপকারিতা!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen + 12 =