নারীদের জন্য স্বাস্থ্যকর ও উপকারী ফলগুলো

0
335
নারীদের জন্য ফল

অনেকেই হয়তো টাইটেল পড়েই ভ্রু কুচকে ফেলবেন। কারণ সকলেই জানেন প্রতিটি ফল স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। তবে যে ব্যাপারটি অনেকেই জানেন না, সকল ফলের মাঝে কিছু ফল অন্যান্য ফলের চাইতেও বেশী উপকারী ও স্বাস্থ্যকর। এই সকল দারুণ ফলদের বলা হয়ে থাকে ‘সুপার ফ্রুটস’

নারীদের জন্য উপকারী ফল বলার কারণ হচ্ছে প্রতিটি ফলেই রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সমূহ, মিনারেল, আঁশ এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা একজন নারীর শারীরিক সুস্থতা নিশ্চিত করার পাশাপাশি প্রাকৃতিকভাবে সৌন্দর্য বৃদ্ধি করতেও সাহায্য করে থাকে। বিশেষ করে দৈহিক গঠন ও শারীরবৃত্তিয় প্রক্রিয়ার জন্যে একজন নারীর প্রয়োজন বাড়তি ও সঠিক পুষ্টি উপাদান সমূহ। যা এইসকল ফল গ্রহনে পাওয়া সম্ভব। এমন দারুণ কিছু সুপার ফ্রুটস এর কথা আলোচনা করা হলো।  

আপেল

‘প্রতিদিন একটি করে আপেল গ্রহণ ডাক্তার থেকে দূরে থাকতে সাহায্য করে’ পুরনো এই প্রবাদ বাক্য তো সকলেরই জানা। কিন্তু এটাও মনে রাখতে হবে, ওল্ড ইজ গোল্ড! লাল অথবা সবুজ যে কোন আপেলেই রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আঁশ ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। বিশেষ করে আপেলের খোসাতে রয়েছে ভিন্নধর্মী একটি উপাদান। যাকে বলা হয়ে থাকে কোয়েরসেটিন। এই উপাদান প্রদাহ ও অ্যালার্জির প্রাদুর্ভাব কমাতে সাহায্য করে থাকে। এছাড়াও গবেষণা থেকে প্রমাণিত হয়েছে, প্রতি সপ্তাহে কমপক্ষে ৫ টি আপেল খাওয়ার ফলে ফ্লু তে আক্রান্ত হবার সম্ভবনা, যারা আপেল গ্রহণ করেন না তাদের চেয়ে বেড়ে যায়।

কলা

কলাতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালরি (প্রতিটি পাকা কলাতে রয়েছে ১০০+/- ক্যালরি) থাকলেও এই সুপারফ্রুটসে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পটাসিয়াম এবং স্বাস্থ্যকর স্টার্চ। যা রক্তচাপ নিয়ন্ত্রন করতে, কিডনির কার্যকারিতা বৃদ্ধি করতে এবং মেটাবলিজম বাড়াতে সাহায্য করে থাকে। বিশেষ করে, অসময়ের ক্ষুধা নিবারণে সবচাইতে উপকারী ও স্বাস্থ্যকর ফল হলো কলা।

জাম্বুরা

হৃদযন্ত্রের জন্য জাম্বুরা খুবই উপকারী একটি ফল। এমনকি বেশ কিছু গবেষণা থেকে দেখা গেছে, জাম্বুরা রক্তের খারাপ কোলেস্টেরল এর মাত্রা কমাতে সাহায্য করে থাকে। এছাড়াও, ফলে থাকা অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট শরীরের ফ্রি-রেডিকেল এর প্রভাব দূর করে শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে।

আঙ্গুর

বিশেষ করে লাল আঙ্গুরে রয়েছে এক ধরণের কেমিক্যাল। যাকে বলা হয়ে থাকে Resveratrol. এই কেমিক্যাল হৃদযন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে, আলঝেইমার রোগের ঝুঁকি কমাতে এবং মস্তিস্ক ও ঘাড়ের ক্যান্সার প্রতিরোধ করতে সাহায্য করে থাকে।

এছাড়াও, দারুণ এই সুপারফ্রুটে রয়েছে বিশেষ ধরণের একটি অ্যাসিড। যাকে বলা হয়ে থাকে ম্যালিক অ্যাসিড। এই অ্যাসিড উপাদান দাঁতকে দাগমুক্ত রাখতে সাহায্য করে। তবে মনে রাখতে হবে, আঙ্গুর বেশী পেকে গেলে এই অ্যাসিডের মাত্রা কমে যায়।

লেবু

সাইট্রাস ঘরানার ফল লেবুতে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন-সি, মিনারেল সমূহ এবং আঁশ। যা রোগ প্রতিরোধ করতে, বয়সের ছাপ দূর করতে, ফ্রি-রেডিক্যালের প্রভাব মুক্ত করতে এবং রোদের ক্ষতিকর ইউভি (UV) রশ্মি থেকে রক্ষা করতে সাহায্য করে থাকে। বিশেষ করে, দাঁতের মাড়ির সমস্যা দূর করতে লেবু দারুণ কার্যকরী ফল।

ডালিম (আনার)

ডালিমের শক্ত ও পুরু খোসা ছাড়ানোর পর কী দেখতে পান বলুন তো? রক্ত লাল রঙের ছোট ছোট পাথরের মতো চমৎকার ডালিম ফল! দেখতে ও খেতে অপূর্ব এই সুপারফ্রুটে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে আয়রন এবং অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট সমূহ। যা পিরিয়ডের সময় নারীদের শরীরে আয়রনের ঘাটতি পূরণ করতে এবং রক্তে হিমোগ্লোবিনের স্বাভাবিক পরিমাণ বজায় রাখতে সাহায্য করে থাকে।

কমলালেবু

সাইট্রাস সুপারফ্রুট কমলালেবুতে রয়েছে আঁশ, উচ্চমাত্রায় ভিটামিন-সি, বি-কমপ্লেক্স ভিটামিন সমূহ এবং ক্যালসিয়াম। এই প্রতিটি প্রাকৃতিক উপাদান একজন নারীর সুস্বাস্থ্যের জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

স্ট্রবেরী

সুস্বাদু স্ট্রবেরী স্বাস্থ্যের জন্য খুবই উপকারী একটি ফল। কারণ, এতে রয়েছে পর্যাপ্ত পরিমাণে ফলেট এবং ভিটামিন-সি। যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কার্যকর রাখতে এবং অন্যান্য কার্যক্রম সচল রাখতে সাহায্য করে থাকে। এছাড়াও, দাঁতের স্বাস্থ্যের জন্য স্ট্রবেরী খুব উপকারী একটি ফল।

পেঁপে

সুপারফ্রুট পেঁপেতে রয়েছে শক্তিশালী অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট, ভিটামিন-এ, ই এবং সি। স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী হলেও এই ফল একবারে বেশী খাওয়া উচিৎ নয়। কারণ, পেঁপে খাওয়ার ডায়রিয়ার সমস্যা দেখা দিতে পারে।

তরমুজ

মৌসুমি ফল তরমুজের সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো, এটা সম্পুর্ণই পানিযুক্ত! এছাড়াও এতে রয়েছে আঁশ, এবং ভিটামিন-এ। গরমের সমস্যা ডিহাইড্রেশন দেখা দিলে তরমুজ খাওয়া সবচেয়ে কার্যকরী ও ইতিবাচক প্রভাব ফেলে শরীরের ওপর।

আনারস

আনারস খেতে কে না পছন্দ করে! মজাদার এই ফলে রয়েছে ব্রোমেলাইন নামক একটি উপাদান। যা খাদ্য পরিপাকে সাহায্য করে থাকে। যে কারণে পেট ফাঁপা ভাব দেখা দিলে, পেটে গ্যাস তৈরি হলে অথবা বদহজম দেখা দিলে কয়েক টুকরো আনারস খেয়ে নিতে হবে দ্রুত।

সূত্রBoldsky

আরো পড়ুনঃ নারীদের জন্য অত্যন্ত জরুরী ৫টি পুষ্টি উপাদান ও তাদের উৎস

আরও পড়ুনঃ   মৃত সন্তান প্রসবের ঝুঁকি কমিয়ে আনতে পারে সহজ এই কাজটি

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

eighteen + nine =