পুরুষের রোগ পেরোনিস

0
পেরোনিস

লসিকা গ্রন্থিতে প্রদাহ পেরোনিস ডিজিজ (Peyronie’s Disease)নামে এক ধরনের রোগ আছে। এ রোগের বিশেষ করে উত্থানের সময় পুরুষাঙ্গে ব্যথা ও স্থায়ী বক্রতা লক্ষ করা যায়। এর সঠিক কারণ জানা যায়নি। সাধারণত মধ্যবয়সী লোকদের মধ্যে এ রোগ দেখা যায়। হাত দিয়ে পরীক্ষা করলে পুরুষাঙ্গে শক্ত ফোলা ভাব অনুভূব হয়। যে তন্ত স্বাভাবিক অবস্থায় নরম থাকে এক্ষেত্রে তার স্থিতিস্থাপকতা নষ্ট হয়ে যায়। কিছু ক্ষেত্রে নিজ থেকে ভালো হয়ে গেলেও কখনো কখনো শল্য চিকিৎসার প্রয়োজন পড়ে। প্রয়োজনে আক্রান্ত স্থানে স্টেরয়েড ইনজেকশন দিতে হতে পারে।
.
পুরুষের লিঙ্গের গায়ে যে কোনো এক পাশে শক্ত দানার মতো কিছু জিনিস হয় যাতে ক্যালসিয়াম জমে অনেক সময় সেই দানা গুলো পাথরের মতো শক্ত হয়ে যেতে পারে। এক্স-রে করলে পুরুষাঙ্গের ঐ দানা গুলো এক্সরে ফিল্ম এ ধরা পরে। লিঙ্গের যে দিকে এই দানা গুলো হয় উত্থিত লিঙ্গটি ঐ দিকেই বাঁকা হয়ে থাকে।
পেরোনিস রোগের সঠিক কারণ সম্পর্কে কেউই অতটা নিশ্চিত নন তবে ধারনা করা হয় জীবনের কোনো সময় পুরুষাঙ্গে আঘাত পাবার কারণে এই রোগ হয়ে থাকে।
চিকিৎসা: পেরোনিস রোগের চিকিৎসা বেশ জটিল। এক বার এই রোগ হলে তা ক্রমাগত বাড়তে থাকে তবে কারো কারো ক্ষেত্রে রোগ হবার ৩ থেকে ৫ বছরের মধ্যে নিজে নিজেই তা ভালো হয়ে যায়। যাদের এমন ভালো হয়ে যায়না তারা সত্যিই বেশ ঝামেলায় পড়েন কারন নানাবিধ অসুধের সুনাম জানা থাকলেও কোনোটির কার্যকারীতাই এই পর্যন্ত তেমন ভাবে প্রতিষ্ঠার খোজ পায়নি। এজন্য পেরোনিজ রোগ নিয়ে কেউ যৌন মিলনে বাধাগ্রস্থ হন বা মানসিক অশান্তিতে ভোগেন তার উচিত অপারেশন করিয়ে নেয়া। ইউরোলজিস্ট সার্জন দ্বারা এই সার্জারি (Nesbitt’s operation) করালে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পাওয়া সম্ভব।
সূত্র: এমসিডিসি

যে ৫টি কারণে নারী-পুরুষের যৌন আকাঙ্ক্ষা হ্রাস পায়

আরও পড়ুনঃ   স্ত্রী যেসব কারণে অতৃপ্ত তা স্বামীর অবশ্যই জানা উচিত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

five + eight =