পেঁয়াজে কাশি সারবে একদিনেই

0
149
পেঁয়াজে কাশি

পেঁয়াজ আমরা বিভিন্ন তরকারী রান্নার কাছে ব্যবহার করি। তাছাড়া মুড়ির সাথে মাখিয়ে খায়। পেঁয়াজ শুধু রান্না করাই ব্যবহৃত হয় না । পেঁয়াজে কাশি সারবে একদিনে এমনটাই দাবি করেছেন গবেষকরা। সর্দিতেও পেঁয়াজ ব্যবহার করে ভালো ফল পাওয়া যায়। সবচেয়ে ভালো ফল পাওয়া যায় কাঁচা ব্যবহারে।

গবেষকরা জানান, পেঁয়াজের মধ্যে সালফার ও ফ্লাভোনয়েড নামক উপাদান থাকে। এসব উপাদান হৃদরোগে ভালো ফল দেয়। এ ছাড়া বাতরোগ উপশম এবং ডায়াবেটিস ও কোলেস্টেরলের মাত্রা ঠিক রাখতেও এসব উপাদান ভূমিকা রাখে। এ ছাড়া রোগ প্রতিরোধেও পেঁয়াজ কার্যকর।

সর্দিকাশি নিরাময়ে পেঁয়াজের দুটি খাদ্যপ্রণালি দিয়েছে হেলদি ফুড হাউস ডটকম। তাই আসুন আমরা জেনে নেই এর উপাদান ও ব্যবহার বিধি-

১. উপাদান :
এক কেজি পেঁয়াজ
তিন লিটার পানি
তৈরির পদ্ধতি

পেঁয়াজের ওপরের খোলস ও দুই পাশ পরিষ্কার করুন। প্রতিটি পেঁয়াজ চার টুকরো করুন। কাটা পেঁয়াজ একটি পাত্রের মধ্যে নিয়ে তিন লিটার পানি দিন। পাত্রটি চুলায় নিয়ে উত্তপ্ত করুন। পানি অর্ধেক না হওয়া পর্যন্ত জ্বাল দিতে থাকুন। আগুন থেকে নামিয়ে মিশ্রণটি ঠান্ডা হতে দিন। কয়েকবার নেড়ে দিন। স্বাদের জন্য এর মধ্যে মধু বা লেবুর রস দেওয়া যেতে পারে।

ব্যবহারবিধি:
দিনে দুবার দেড় গ্লাস করে পান করুন।

২.উপাদান: 
দুটি মাঝারি আকৃতির অর্গানিক আপেল
দুটি মাঝারি আকৃতির পেঁয়াজ
১৪টি আখরোট (বাদাম)

প্রস্তুত প্রণালি: 
পেঁয়াজ ধুয়ে পরিষ্কার করুন। প্রতিটি পেঁয়াজ চার টুকরোয় ভাগ করুন। আপেলও ধুয়ে চার টুকরোয় ভাগ করুন। আখরোট ভেঙে নিন। একটি পাত্রে সব উপাদান নিয়ে পানি দিন। পাত্রটিকে চুলোর আগুনের ওপর দিন। পানি অর্ধেক না হওয়া পর্যন্ত চুলায় রাখুন। পরে নামিয়ে ঠান্ডা করুন। স্বাদের জন্য মধু বা লেবুর রস দিতে পারেন।

ব্যবহারবিধি:
দিনে তিনবার এক কাপ করে সেবন করুন।

প্রতিদিন পেঁয়াজ না খেলে কি হতে পারে জানেন?

আরও পড়ুনঃ   বিস্ময়কর ক্ষমতা মেথির!

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

2 × five =