ফ্যাশান সচেতন ছেলেদের যেসব বিষয় জানা জরুরি!

0
243
ফ্যাশান সচেতন ছেলে

যুগ পাল্টেছে, এখন শুধু মেয়েরা নয় ছেলেরাও বেশ ফ্যাশান সচেতন হয়ে উঠেছেন। তবে ফ্যাশন সচেতন ছেলে বলতে এটা বুঝায় না যে তারা ব্র্যান্ডের পোশাক ছাড়া কাপড় এবং ব্র্যান্ডের এক্সেসরিজ বাদে কিছু ব্যবহার করতে চান না। একটু বুদ্ধি খাটিয়ে হাতের কাছে পাওয়া নানা জিনিস এবং কম খরচেও অনেক ফ্যাশনেবল হয়ে ওঠা যায়।

তাই পয়সা খরচ করে নয় মাথা খাটিয়ে ফ্যাশনেবল হয়ে উঠুন। তাই আজ পাঠকদের জন্য দেয়া হলো ছেলেদের ফ্যাশনের জরুরি কিছু বিষয়।

– চুলের কাটের ব্যাপারে সতর্ক হোন। আপনাকে যে চুলের কাটে মানায় সেই ধরনের কাট দিন চুলে একটু পয়সা খরচ করে হলেও। একটি মানানসই চুলের কাট আপনাকে অনেকাংশে ফ্যাশনেবল করে তুলবে।

– চুলের পাশাপাশি দাঁড়ির দিকেও নজর দিবেন। কাউকে একেবারে ক্লিন শেভে ভালো দেখালেও প্রত্যেককে ভালো দেখায় না। আপনার মুখে যদি দাঁড়ি গোঁফ মানায় তবে সেই অনুযায়ী দাঁড়ি গোঁফ রাখুন। এতে করে আপনি হয়ে উঠতে পারেন ফ্যাশনেবল।

– পোশাক-আশাক দামি নয়, পরিপাটি হওয়া প্রয়োজন। আপনি অনেক দাম দিয়ে পোশাক কিনেছেন ঠিকই কিন্তু যত্নের অভাবে তা নষ্ট হয়ে গেছে অথবা রঙ ফ্যাকাশে হয়ে গেছে এমন পোশাক পরিধান না করাই ভালো। পোশাক একটু কম দামি হলেও যদি পরিপাটি করে রাখেন তবে আপনাকে দেখতে পরিচ্ছন্ন ও সুন্দর লাগবে।

– মেয়েদের তুলনায় ছেলেরা একটু বেশিই ঘেমে থাকেন। ছেলেরা যেহেতু বেশিরভাগ সময় ঘরের বাইরে কাটান তাই অবশ্যই লক্ষ্য রাখবেন নিজের পারফিউমের দিকে। বাসা থেকে বেরুনোর সময় বডি স্প্রে বা পারফিউম লাগাতে ভুলবেন না। তবে অতিরিক্ত পারফিউম ব্যবহার করবেন না একেবারেই। খেয়াল রাখবেন বডি স্প্রে বা পারফিউমের গন্ধ যেন বিঁদঘুটে না হয়।

– নানা এক্সেসরিজ যেমন ঘড়ি, সানগ্লাস, রুমাল ইত্যাদি ব্যবহার করুন। সাথে রাখুন স্টাইলিশ মানিব্যাগ। যারা কর্মজীবী মানুষ তারা সাথে রাখতে পারেন ভালো, মানানসই এবং সুন্দর ডিজাইনের সাইডব্যাগ (অফিসব্যাগ)।

আরও পড়ুনঃ   মেয়েদের তেঁতুল খেতে বলা ও ছেলেদের তেঁতুল খেতে নিষেধ করা প্রসঙ্গে -আসলে কী তেঁতুল একটি উপকারী ফল?

– জুতোর দিকে অবশ্যই নজর দিন। কথায় বলে একজন মানুষকে চেনা যায় তার জুতো দিয়ে। জুতো সব সময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখুন। অপরিষ্কার জুতো পড়বেন না। জুতো মলিন হয়ে এলে ভালো করে পলিশ করে নিন।

– একই স্টাইল বেশীদিন ধারণ করবেন না। মাঝে মাঝে স্টাইল পরিবর্তন করুন। পোশাক আশাকের ধরনে, চুলের কাটে এবং দাঁড়ি গোঁফের কাটে পরিবর্তন আনুন মাঝে মাঝেই। এতে করে আপনাকে অনেকটাই ফ্যাশনেবল লাগবে।

-জে এস

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

8 + seven =