রান্নাঘরের ইলেক্ট্রনিক জিনিস বা গ্যাজেটের যত্ন নিবেন যেভাবে

0
রান্নাঘরের ইলেক্ট্রনিক জিনিস

১. ব্লেন্ডার/ গ্রাইন্ডারঃ ফলের জুস ও মশলা ব্লেন্ড করার জন্য খুব প্রয়োজনীয় জিনিস।ব্লেন্ডার/ গ্রাইন্ডার পরিষ্কার নিয়ে অনেকেই বিপাকে থাকেন। কারন ফল বা মসলার অংশ ব্লেডে আটকে থাকে। কিন্তু খুব সহজে মাত্র ৩০ সেকেন্ডেই এটা পরিষ্কার করা সম্ভব। প্রতিবার ব্যাবহারের পড়ে হালকা গরম পানি, কয়েক ফোঁটা ডিশ সোপ দিয়ে ৩০ সেকেন্ড ব্লেন্ড করে নিন। ব্যাস এরপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

২. ফ্রিজ/ ফ্রিজারঃ ফ্রিজ কখনও বেশি খাবার দিয়ে বোঝাই করে রাখবেন নাহ। এতে কম প্রেসারে চাপ পড়ে। প্রতি ১৫ দিন পর পর ফ্রিজ ভালো করে পরিষ্কার করতে হবে। ফ্রিজের সব খাবার বের করে, তাক বের করে সাবান ও গরম পানি দিয়ে মুছে ফেলতে হবে। তাকগুলোও ভালকরে সাবান দিয়ে ধুয়ে শুকিয়ে নিতে হবে।

৩. রাইস কুকারঃ প্রতিবার রান্নার শেষে রাইছ কুকারের উপরের ঢাকনা, রান্নার পট ধুয়ে ফেলতে হবে। কাঠের চামচ ব্যবহার করতে হবে। রান্নার পরে কুকার ঠাণ্ডা হবার জন্য খোলা রাখতে হবে। আর ভাত রান্নার সময় ১/২ চামচ সয়াবিন তেল দিলে নিচে ভাত লাগবে নাহ।

৪.মাইক্রোওয়েভ ওভেনঃ একটা ওভেনপ্রুভ বাটিতে পানি ও লেবুর খোসা/ টুকরা নিয়ে ১ মিনিট ওভেন চালু করে দিন।এরপর একটা পরিষ্কার কাপড় নিয়ে মুছে ফেলুন।একদম ঝকঝকে।

৫.ইলেকট্রিক কেতলিঃ কেতলিতে ২ ভাগ পানি ও ১ ভাগ ভিনেগার ভরে নিন।কেতলি চালু করে দিন,বলক আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন। কেতলি বন্ধ করে আর ২০ মিনিট এভাবে রেখে দিন। তারপর পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে নিন।

৬.স্যান্ডউইচ মেকারঃ স্যান্ডউইচ বানানোর সময় প্রতিবার অলিভ অয়েল বা সয়াবিন তেল ব্রাশ করে নিন,এতে স্যান্ডউইচ প্লেটটা ভালো থাকবে। তাছাড়া একটা কাপড়ে সাবান পানি নিয়ে মুছে, অন্য পরিষ্কার কাপড় দিয়ে শুকিয়ে ফেলতে হবে।

৭. কফি মেকারঃ ২ ভাগ পানি ও ১ ভাগ সাদা ভিনেগার একসাথে কফি মেকারে দিয়ে চাল করে দিন। ১০-১৫ মিনিট মেকার চালু রাখুন বা পুরোপুরি বলক আসা পর্যন্ত। এরপর বন্ধ করে আরও ১৫ মিনিট রেখে দিন। ভালো করে সাদা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। আব্র মেকার সুদু পানি দিয়ে চালু করে দিন ৫-১০ মিনিট। এতে ভিনেগারের গন্ধ পুরো চলে যাবে।

আরও পড়ুনঃ   ঘরে বসে ঘি তৈরি করবেন যেভাবে

৮. টোস্টার:টোস্টারের ভেতরের প্লেট খুলে গরম পানি ও সাবান দিয়ে ধুয়ে নিন। ভালকরে শুকিয়ে নিন। টোস্টারকে উল্টো করে ভেতরের ময়লা পরিষ্কার করে নিন। এভাবে ১/২ দিন পরপর করতে হবে।

৯. এগ বিটারঃকাজ শেষে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ধুয়ে ফেলতে হবে। যদি তা না হয় তাহলে একটা বোলে ফ্রিজের ঠাণ্ডা পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে। গরম পানি ব্যাবহার করা যাবে না।

১০. ফুড প্রসেসরঃ প্রসেসরের ব্লেড, পট সব খুলে আলাদা করে নিন। রান্নাঘরের সিঙ্ক বা একটা বড় গামলায় গরম পানিতে ডিশ সোপ দিয়ে ভিজিয়ে রাখুন। কিছুক্ষন পরে বোতল পরিষ্কার করার ব্রাশ দিয়ে প্রসেসরের জগ পরিষ্কার করে নিন। ব্লেডের ভিতরের অংশ একটা ছোট ব্রাশ দিয়ে পরিষ্কার করে নিন। প্রসেসরের মোটরটাতে পানি লাগাবেন না, ভেজা কাপড় দিয়ে মুছে নিন।

📝 ইন্টারনেট

রান্নাঘরের টুকিটাকি থেকে পাবেন যে ৭টি রোগের সমাধান

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

thirteen − one =