শীতে ঠোঁট রক্ষায় দুধের সর!

0
Lactation to protect lips

ত্বকের পাশাপাশি ঠোঁটের যত্ন খুবই জরুরি। শীতের দিনে ঠোঁট ফাটা নিয়ে পড়তে হয় মহা বিব্রতকর পরিস্থিতে। পড়তে হয় নানা বিরম্বনায়। তাই জেনে নিন ঘরোয়া পদ্ধতিতে ঠোঁট ফাটা সহ বিভিন্ন সমস্যা সমাধানের ঘরোয়া পদ্ধতি।

মিল্ক ক্রিম: মিল্ক ক্রিম বা দুধের সর লাগালেও খুব সহজে ঠোঁট ফাটা সেরে যায়। তাজা দুধের সর নিয়ে ১০-১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। এরপর হাল্কা গরম জলে তুলো ভিজিয়ে নিন এবং আলতো করে ঠোঁট মুছে নিন।

মধু ও গোলাপ জল: খুব তাড়াতাড়ি ঠোঁট ফাটা কমায় এবং তাকে করে তোলে নরম ও পেলব। এক চা চামচ মধু ও এক চা চামচ গোলাপ জল মিশিয়ে নিন। ঠোঁটে ১৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। তারপর ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দিনে অন্তত চারবার এই মিশ্রণটি ঠোঁটে লাগানোর চেষ্টা করুন।

জোজোবা অয়েল: দিনে অন্তত দুবার জোজোবা তেল ঠোঁটে লাগান। ১৫ মিনিট লাগিয়ে রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ঠোঁট ফাটা তো কমবেই তার সঙ্গে ঠোঁটের লালচে আভা আবার ফিরে আসবে।

গ্রিন টি ব্যাগ: অনেকেই জানেন না গ্রিন টি ব্যাগ খুব ভালো ময়শ্চারাইজারের কাজ করে। এবং খুব সহজেই এটা ব্যবহার ও করতে পারবেন। একটা ব্যবহৃত টি ব্যাগ নিন এবং ঠোঁট দিয়ে চেপে ধরুন। এইভাবে চার মিনিট রেখে দিন। দিনে একবার করে করলেই হবে।

লেবুর রস: নরম ও পেলব ঠোঁট খুব সহজেই পাবেন লেবুর রস লাগিয়ে এছাড়া নিয়মিত লেবুর রস লাগালে ঠোঁটের বয়েস বাড়বে না। এছাড়াও কালো ছোপ ও মিটে যাবে । এক চা চামচ দুধের সর ও তিন ফোঁটা লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটা ফ্রিজে রেখে দিন। রোজ রাতে শুতে যাওয়ার আগে এই মিশ্রণটা লাগিয়ে নিন। সুফল পাওয়ার জন্য অন্তত তিন দিন অপেক্ষা করুন।

আরও পড়ুনঃ   বাজারের সেরা ৫টি নাইট ক্রিম চিনে নিন

অ্যালোভেরা: প্রাকৃতিক ময়শ্চারাইজার ছাড়াও ব্যথা দূর করে অ্যালোভেরা। অ্যালোভেরা জেল বা সরাসরি অ্যালোভেরা পাতা সরাসরি ঠোঁটের ওপর লাগাতে পারেন। একটুকরো অ্যালোভেরা পাতা নিন। পাতা থেকে রস চিপে তা ঠোঁটের ওপর লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জলে ধুয়ে ফেলুন ।

শশা: এক টুকরো শশা নিয়ে ভালো করে তা ঠোঁটের ওপর হাল্কা করে ঘষুন। ১৫ থেকে ২০ মিনিট শশার রস ঠোঁটে লাগিয়ে রাখুন। দিনে যতবার খুশি শশার রস লাগাতে পারেন।

নারকেল তেল: ঠোঁট ফাটা খুব সহজেই নারকেল তেল লাগালে সেরে যায়। কয়েক ফোঁটা তেল ঠোঁটের ওপর লাগিয়ে নিন । নারকেল তেলের বদলে অলিভ অয়েল ও লাগাতে পারেন।

চিনি: ঠোঁটের শুকনো চামড়া চিনির সাহায্যে এক্সফলিয়েট করে তুলে ফেলুন। নিয়মিত এক্সফলিয়েট করলে ঠোঁট নরম হবে। সামান্য চিনি আর অলিভ অয়েল মিশিয়ে নিন। এরপর হাল্কা করে ঠোঁটের ওপর ঘষতে থাকুন। ১০ মিনিট করার পর হাল্কা গরম জল দিয়ে ঠোঁট ধুয়ে ফেলুন।

মায়ের দুধ কেন খাওয়াবেন?

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

two × four =