সৌন্দর্য্য চর্চায় মসুর ডালের হরেক গুণ

0
সৌন্দর্য্য চর্চা, মসুর ডাল

নিজেকে ভালো রাখার জন্য ঘরে বসেই করতে পারেন রুপচর্চা। নিজের যত্ন আপনি নিজেই সবচেয়ে ভালো বোঝেন। এই গরমে রুপচর্চায় প্রথম উপকরণ হলো পানি, বেশি করে পানি খাওয়ার সাথে সাথে ত্বকের যত্ন নিন। নিজের সুন্দর, মসৃন, মোলায়েম ও উজ্জ্বল ত্বকের আকাঙ্ক্ষা পূরণ করতে পারে রান্না ঘরের সাধারণ মসুর ডাল। মসুর ডাল দিয়ে রুপচর্চার বিভিন্ন পদ্ধতি নিয়ে আলোচনা করা হলো-

মুখের কালচে বা ব্রণের দাগ দূর করতে

মসুর ডালকে রাতে দুধের মধ্যে ভিজিয়ে রাখুন। সকাল বেলায় ডাল বেটে মুখে লাগান। রোজ যদি মুখে এই প্যাকটা লাগান আপনার ত্বকের কালো ভাবটা ও কালো দাগ দূর হয়ে যাবে। তবে মনে রাখবেন, প্রতিদিন ডাল বেটে নিবেন আগের দিনের বাটা ডাল ত্বকের জন্য ভালো কাজ করবেনা।

ত্বক সতেজ করতে

মসুরির ডাল বেটে তার মধ্যে মধু এবং দই মিশিয়ে মুখে লাগান। ২০ মিনিট পর হালকা ম্যাসাজ করে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে আপনার ত্বক সতেজ হবে।

মুখে বা পিঠের দাগ দূর করতে

যদি মুখে বা পিঠে দাগ হয়, তাহলে মসুরের ডালের সাথে পোলাও চাল মিশিয়ে পেস্ট করুন। এর সাথে চন্দন পাউডার, মুলতানি মাটি, কমলা লেবুর শুকনো গুঁড়ো মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। ৪ চামচ শশার রসও দিন। মুখে এবং শরীরের নানা স্থানে ঐ পেস্টটা লাগান। শুকিয়ে যাওয়ার পরে ধুয়ে ফেলুন।

গোপন অঙ্গের দাগ দূর করতে

গোপন অঙ্গের যেমন- বোগল, রানের দুই পাশের, কোমরের কাল দাগ দূর করতে মসুরের ডালের সাথে কমলা লেবুর শুকনো গুঁড়ো, ৪ চামচ শশার রসও মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে লাগান। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

কনুইর রুক্ষভাব এবং কালো দাগ দূর করতে

দুধে মসুর ডাল ভিজিয়ে বাটুন। মসুর ডাল বাটা, হলুদ বাটা, পালংশাক বাটা, টমেটোর রস, সূর্যমুখীর তেল একসঙ্গে মিশিয়ে কনুইয়ে লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন।

আরও পড়ুনঃ   একবার মাখলেই বয়স কমবে ১০ বছর !
রোদে পোড়া দাগ দূর করতে

রোদেপোড়া দাগ কমাতে মসুর ডালবাটা, কাঁচা হলুদবাটা ও মধু একসাথে মিশিয়ে ত্বকে লাগান। শুকিয়ে গেলে ধুয়ে ফেলুন।

বলিরেখা দূর করতে

বলিরেখা দূর করতে কাঁচা হলুদের সাথে মসুর ডাল বাটা দুধের সর মিশিয়ে মুখে মাখুন ফেস প্যাক হিসাবে। নিয়মিত লাগালে অবশ্যই দারুন উপকার পাবেন।

পায়ের পাতা

পায়ের পাতা বা আঙুলের কালচে, হাঁটু, পায়ের গোড়ালির ময়লা ও রুক্ষভাব দূর করতে প্রাচীনকাল থেকে মসুর ডাল বাটা, হলুদ বাটা, লেবুর রস বা লেবুর খোসার ব্যবহার হয়ে আসছে। মসুর ডাল বাটা, হলুদ বাটা, লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে পায়ের পাতায় লাগান। কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন।

পরিশেষে নিজেকে সুন্দর ও সুস্থ রাখুন। ত্বক পরিচর্যার সাথে সাথে সুষ্ঠ খাদ্যাভাস গড়ে তুলুন। বাহ্যিক সৌন্দর্য্যের পাশাপাশি মানসিক উৎকর্ষতা বিকাশেও সচেষ্ট হন। তাহলে পূর্নাঙ্গ সৌন্দর্য বিকশিত হবে।

স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য রক্ষায় ইভিনিং প্রিমরোজ

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

twelve + 3 =