২৫ বছর হিমায়িত রাখা ভ্রণ থেকে শিশুর জন্ম

0
হিমায়িত রাখা ভ্রণ থেকে শিশুর জন্ম
মার্কিন এক নারী ২৪ বছরের হিমায়িত ভ্রূণ থেকে চমৎকার একটি কন্যা শিশুর জন্ম দিয়েছেন। কন্যা শিশুটির নাম রাখা হয়েছে এমা রেন গিবসন। গত ২৫ নভেম্বর শিশুটি জন্ম নিয়েছে। ওই শিশুটির নাম রাখা হয়েছে এমা রেন গিবসন। চলতি সপ্তাহে তার জন্মের ঘোষণা দিয়েছে টেনেসির নক্সভিলের ন্যাশনাল এমব্রায়ো ডোনেশন সেন্টার (এনইডিসি)।
হাসপাতাল সূত্র বলছে, এটি সম্ভবত বিশ্ব রেকর্ড হতে যাচ্ছে। জানা যায়, ১৯৯২ সালের ১৪ অক্টোবর ভ্রণটি হিমায়িত করা হয়। আর ওই ভ্রণ থেকে মা টিনা গিবসনের গর্ভে এমা রেনের জন্ম হয় ২৫ নভেম্বর। কন্যা শিশুটির বয়স ৬ পাউন্ড ৮ আউন্স এবং সে ২০ ইঞ্চি লম্বা। সন্তান জন্মদানকারী মা টিনা গিবসনের জন্ম ১৯৯১ সালে। অর্থাৎ যে ভ্রূণ থেকে এমা রেনের জন্ম সে তার মায়ের থেকে কেবল এক বছরের ছোট।

গিবসন স্থানীয় টেলিভিশনকে বলেন, ‘তোমরা কি বুঝতে পারছ আমি ২৫ বছর বয়সী। এ ভ্রণ এবং আমি সর্বোত্তম বন্ধু ছিলাম। আমি একটি সন্তান চেয়েছিলাম মাত্র, কোনো রেকর্ডের কথা আমার মাথায় ছিল না।’ এর আগে ২০ বছর হিমায়িত করা ভ্রণ দিয়ে সফলভাবে সন্তান জন্মদানের কথা জানা যায়।

হাসপাতাল সূত্র মতে, এ ঘটনাটি সম্ভবত বিশ্ব রেকর্ড হতে যাচ্ছে। মা ও মেয়ের বয়সের ব্যবধান মাত্র এক বছরের ছোট-বড়।

টিনা গিবসন ৭ বছর আগে যখন বিয়ে করেন, তখন তার স্বামী সিস্টিক ফিব্রোসিস রোগে আক্রান্ত ছিলেন। এ কারণে তারা একটি সন্তানকে দত্তক নেয়ার চিন্তা করেন। কিন্তু গিবসনের বাবা হিমায়িত ভ্রণ থেকে সন্তান জন্মদানের কথা বলেন।

এরপর তারা বেশ কয়েকটি পরীক্ষা-নিরীক্ষায় দেখেন, গিবসনের জরায়ুতে ভ্রণ প্রতিস্থাপন করা সম্ভব। সন্তান জন্মদানের আগে চিকিৎসক তাকে জানান, তিনি বিশ্বরেকর্ড গড়তে যাচ্ছেন।

স্থানীয় টেলিভিশনকে দেয়া এক সাক্ষাতকারে গিবসন বলেন, গর্ভধারণ না করা পর্যন্ত ডাক্তাররা তাকে জানায়নি যে ভ্রূণ ২৪ বছর আগের।
এনইডিসি বলছে, এ ঘটনা এটাই প্রমাণ করে দীর্ঘদিন হিমায়িত থাকার পরও ভ্রূণ থেকে বাচ্চার সফল জন্ম দেয়া সম্ভব।
এদিকে ধারণা করা হচ্ছে এটিই হয়তো প্রথম যে এতো বছরের পুরনো ভ্রূণ থেকে সন্তান জন্ম দেয়া হয়েছে। এর আগে ২০ বছরের হিমায়িত ভ্রূণ থেকে একটি ছেলে শিশুর জন্ম দেয়ার ঘটনা ঘটেছে।

গিবসন ও তার স্বামী নিজস্ব সন্তান জন্ম দিতে সক্ষম না হওয়ায় তারা এনইডিসি’র কাছে যায়। বর্তমানে তারা খুবই আনন্দিত ও উৎফুল্ল।

আরও পড়ুনঃ   স্বাস্থ্যসেবা পেতে এই নম্বরে- ১৬২৬৩ ফোন করুন

আরও পড়ুনঃ  জন্মের প্রথম দিনে নবজাতকের প্রয়োজনীয় যত্ন

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

19 + eighteen =